September 20, 2018

ফুলবাড়ী থানা প্রেস ক্লাবের তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ

756
মোঃ মেহেদী হাসান উজ্জল,দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ  প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী এ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান ফিজারের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের প্রতিবাদে ফুলবাড়ী থানা প্রেস ক্লাবের তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ। দিনাজপুরের ফুলবাড়ী  থানা প্রেস ক্লাবে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রীর বিরুদ্ধে ভূমি দখলের অপপ্রচারের অভিযোগে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল শুক্রবার সকাল ১১টায় ফুলবাড়ী থানা প্রেস ক্লাবে সভাপতি মোঃ আফজাল হোসেনের সভাপতিত্বে এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবাদ সভায় প্রেস ক্লাবের সভাপতি মোঃ আফজাল হোসেন বলেন, পার্বতীপুর উপজেলার চন্ডিপুর গ্রামের স্থানীয় সংখ্যা লঘুদের সম্পত্তি জবর দখলের ঘটনার সাথে প্রথামিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী এ্যাডভোকেট মোঃ মোস্তাফিজুর রহমার ফিজার (এমপি) কে জড়িয়ে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী এ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার এমপি এই এলাকার মানুষের সাথে সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক রেখে সবরকম কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি পার্বতীপুর ফুলবাড়ী নির্বাচনী-৫ এলাকার ৬ বার এমপি নির্বাচিত হয়েছেন। ২ বারের মন্ত্রীত্ব পেয়েছেন। তার বিরুদ্ধে উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের বড় চন্ডিপুর বাবুপাড়া গ্রামে জমি দখল ও পাল্টা দখলের ঘটনায় ঐ এলাকায় এমদাদ চৌধুরীর লোকদের সাথে প্রতিপক্ষের মধ্যে বেশ কিছুদিন আগে মারপিট ও সংঘর্ষ বাধে। উল্লেখ্য যে, এমদাদ চৌধুরী তার জমির রায় পেয়েছেন হাইকোর্ট থেকে। ঐ ঘটনার সাথে প্রাথামিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী এ্যাডভোকেট মোঃ মোস্তাফিজুর রহমার ফিজার (এমপি) এর সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ এনে হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের ভূইফোড় নেতা কাজল দেবনাথ মন্ত্রীকে মন্ত্রীত্ব থেকে অপসারনের দাবী জানান। কিন্তু প্রাথমিক গণশিক্ষা মন্ত্রী এ্যাডভোকেট মোঃ মোস্তাফিজুর রহমার ফিজার (এমপি) তার খালাতো ভাই এমদাদ চৌধুরীকে নিয়ে সংখ্যালঘুদের সম্পত্তি দখল করে। এ ঘটনার সাথে  প্রাথমিক গণশিক্ষা মন্ত্রী এ্যাডভোকেট মোঃ মোস্তাফিজুর রহমার ফিজার (এমপি) এর কোন সম্পৃকতা নেই।

একটি মহল তার ভাব মূর্তি ক্ষুন্য করার জন্য ঐ এলাকায় এ ধরনের মিথ্যা প্রচার চালাচ্ছেন। আমরা সাংবাদিকরা বাংলাদেশ পূজা উদযাপন কমিটির কেন্দ্রীয় সভাপতি কাজল দেবনাথের এহেন কার্যকলাপে তাকে গ্রেফতার করে আইনগত ব্যবস্থা নিয়ে পূজা উদযাপন কমিটি থেকে বহিষ্কারের দাবি জানাচ্ছি। একজন সুনামধন্য মন্ত্রীর বিরুদ্ধে এই রুপ কুৎসা রটানো কেউ মেনে নিতে পারে না। পরবর্তীতে মন্ত্রীর বিরুদ্ধে এহেন উষ্কানিমূলক কোন মন্তব্য বা বক্তব্য না দেওয়ার জন্য সতর্ক করছি। প্রতিবাদ সভায় উপস্থিত ছিলেন ফুলবাড়ী থানা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমান চৌধুর, সাবেক সভাপতি মোঃ আব্দুল হাফিজ মাষ্টার, প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদ, সাধারণ সম্পাদক মোঃ মেহেদী হাসান উজ্জল, সাংবাদিক মোঃ খোরশেদ আলম, মোঃ জাহাঙ্গীর আলম, শ্রী বিজয় চন্দ্র, মোঃ আশরাফুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম জুয়েল, শ্রী বীরেন্দ্র নাথ শর্মা কৈলাস, মোঃ রব্বানী, মোঃ আব্দুল মান্নান ও  মেহেদী হাসান প্রমুখ।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts