November 16, 2018

ফিলিপাইনে সংঘর্ষে নিহত ১৯

aএশিয়া ::

ফিলিপাইনের দক্ষিণাঞ্চলীয় নগরীতে উগ্রবাদীদের সাথে নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘর্ষে ১৯ বেসামরিক লোক নিহত হয়েছেন। রোববার সেনাবাহিনী একথা জানিয়েছে।

এই নিয়ে প্রায় এক সপ্তাহ ধরে চলা এই লড়াইয়ে কমপক্ষে ৮৫ জন প্রাণ হারাল।

চলমান এই সহিংসতার জেরে প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে মঙ্গলবার ফিলিপাইনের দক্ষিণাঞ্চলে সামরিক আইন জারি করেন।

তিনি উগ্রবাদীদের সাথে ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সংশ্লিষ্টতার হুমকি রয়েছে বলে জানিয়েছেন।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, উগ্রবাদীরা মারাউইতে ১৯ বেসামরিক লোককে হত্যা করেছে। দুই লাখ জনসংখ্যা অধ্যুষিত এলাকাটির অধিকাংশ বাসিন্দা মুসলিম।

নিহতদের মধ্যে তিন নারী ও একটি শিশুও রয়েছে। একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে এদের লাশ পাওয়া গেছে।

সেনাবাহিনীর আঞ্চলিক কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কর্ণেল জো-আর হেরেরা বলেন, ‘এগুলো বেমাসরিক ও নারীদের লাশ। এই সন্ত্রাসীরা জনবিরোধী। শনিবার উদ্ধার অভিযানকালে আমরা এ লাশগুলো দেখতে পাই।’

এএফপি’র এক আলোকচিত্রী রোববার মারাউই’র উপকণ্ঠের একটি রাস্তায় আরো আটটি লাশ দেখতে পান।

স্থানীয় বাসিন্দারা এদেরকে রাইস মিল ও একটি মেডিক্যাল কলেজের কর্মী বলে সনাক্ত করেছেন।

হেরেরা বলেন, সেনাবাহিনী এই মৃত্যুগুলোর ব্যাপারে তদন্ত করবে।

নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা ফিলিপাইনের প্রবীণ উগ্রবাদী ইসনিলোন হাপিলোনকে স্থানীয় আইএস নেতা হিসেবে অভিযুক্ত করে গ্রেফতার করতে গেলে এই সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় বেশ কয়েকজন বন্দুকধারী মারাউইজুড়ে তাণ্ডব শুরু করে।

বন্দুকধারীরা বিভিন্ন স্থানে কাল রঙের আইএস এর পতাকা উত্তোলন করে। তারা একটি চার্চ থেকে এক পাদ্রী ও ১৪ জনকে জিম্মি করে নিয়ে যায় এবং চার্চে আগুন ধরিয়ে।

Related posts