November 14, 2018

প্রেসক্লাবও দখল করেছে আওয়ামী লীগ – খালেদা জিয়া

ঢাকাঃ  আওয়ামী লীগ জোর করে সব দখল করছে’ অভিযোগ করে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন, ‘তারা যেমন জোর করে ক্ষমতায় এসেছে, তেমনি জায়গা জমি ও ঘর-বাড়িও দখল করছে। এমনকি সাংবাদিকদের প্রেসক্লাবও দখল করেছে তারা। সেখানে কাউকে যেতে দিচ্ছে না। প্রেসক্লাবে নির্বাচন হতে দিচ্ছে না।’

রোববার (২৬ জুন) সুপ্রিম কোর্ট বার অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে এক ইফতার মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে) ও ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) একাংশের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সরকারের উদ্দেশ্যে খালেদা জিয়া বলেন, ‘জঙ্গি ধরবেন ধরেন, আমরাও এ কাজে সমর্থন করি। কিন্তু জঙ্গি ধরার নামে গত কয়েকদিনে ১৫ হাজার মানুষকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এরমধ্যে তিনহাজারই বিএনপির নেতা-কর্মী, বাকি ১২ হাজার সাধারণ মানুষ। তাদের অবিলম্বে মুক্তি দিন।’

আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, ‘আওয়ামী লীগ জঙ্গির দল। তাদের কাছে গোলাবারুদ ও দেশি-বিদেশি অস্ত্র পাওয়া যায়। তাদের ধরলেই প্রকৃত বিচার হবে। দেশে শান্তি ফিরে আসবে।’

ন্যূনতম লজ্জা থাকলে আওয়ামী লীগ নতুন নির্বাচন দিতো মন্তব্য করে তিনি বলেন, সেই নির্বাচনে জিতে যদি ক্ষমতায় আসতো তাহলে এদের কর্মকাণ্ড নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা হতো।তখন ভালো কাজ করলে প্রশংসা পেতো আর বাজে কাজের জন্যে সমালোচনা হতো। এখন যা করছে তা ক্ষমতার জোরে।’

ইফতার মাহফিলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, ভাইস চেয়ারম্যান এয়ারভাইস মার্শাল (অব.) আলতাফ হোসেন চৌধুরী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার মাহবুব হোসেন, যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, খায়রুল কবির খোকন, সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক নিতাই রায় চৌধুরী, তৈমুর আলম খন্দকার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বিশিষ্টজনদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দিন আহমেদ, কবি আল মুজাহিদী প্রমুখ।

সাংবাদিক নেতাদের মধ্যে শওকত মাহমুদ, সৈয়দ আবদাল আহমেদ, আব্দুল হাই সিকদার, এম আব্দুল্লাহ, জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, কাদের গণি চৌধুরীসহ আরও অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

Related posts