September 25, 2018

প্রিয়তমাকে বাঁচাতে………..

বৃটিশ নাগরিক মাইকেল ও কনর

জীবন বাঁচানোর প্রাণান্ত চেষ্টায় ব্যস্ত ছিল সবাই। সবখানে লুটিয়ে পড়ছিল মানুষ। গগনবিদারী চিৎকার ভেসে আসছিল। যখন বুঝতে পারলাম কি ঘটছিল তখন আমার প্রথম চিন্তা ছিল কীভাবে আমার প্রিয়তমাকে নিয়ে সেখান থেকে বের হতে পারি। ভালোবাসার মানুষকে বাঁচাতে নিজের শরীর দিয়ে তাকে আড়াল করে রাখি। শেষবারের মতো তাকে বলি- ভালোবাসি। শুক্রবার ব্যাতাক্লাঁ কনসার্ট হলে সন্ত্রাসীদের হত্যাযজ্ঞ থেকে বেঁচে আসা বৃটিশ নাগরিক মাইকেল ও’কনরের বর্ণনায় ভয়াল অভিজ্ঞতার পাশাপাশি উঠে আসে তার ভালোবাসার গল্প।

এ খবর দিয়েছে বৃটেনের সান ও’কনর বলেন, হামলাকারীদের কোন কথা বলতে বা চিৎকার করতে শুনিনি। ওরা শুধু উপস্থিত মানুষদের লক্ষ্য করে নির্বিচারে গুলি করছিল। তাদের বন্দুকের ম্যাগাজিন খালি হবার সঙ্গে সঙ্গে প্রত্যেকে উঠে দরজার দিকে আরেকটু আগানোর চেষ্টা করে। আবারও তারা রিলোড করে গুলি করা শুরু করে আমাদের দিকে। ও’কনর জানান, তার ভালোবাসার মানুষকে বন্দুকধারীদের চোখের আড়াল রাখতে নিজের শরীর দিয়ে তাকে আগলে রাখেন।

মানসিকভাবে মৃত্যুর প্রস্তুতি নিয়ে প্রিয়তমাকে বলেন, ‘আমি তোমাকে ভালোবাসি’। কিন্তু দৃপ্তকণ্ঠে সে ও’কনরকে জবাব দেয় আমরা এখানে মরবো না। হামলাকারীদের বিষয়ে ও’কনর বলে, আমরা তাদেরকে জিততে দিতে পারি না। ওরা পিশাচ। তারা কোন কিছুর প্রতিনিধিত্ব করে না। ওরা মুসলিম নয়। ওরা স্রেফ পশু।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪.কম/রিপন/ডেরি

Related posts