November 15, 2018

প্রার্থীদের আমল নামা দেখে ভোট দেয়ার হিসেব কষছেন ভোটাররা


এ কে আজাদ,চাঁদপুর জেলা প্রতিনিধিঃ  চতুর্থ দাফে চাঁদপুর শাহারাস্তি উপজেলার ৬টি ইউনিয়নে নির্বাচন ৭ মে অনুষ্ঠিত হবে। এখানে নৌকা-ধানের শীষের সাথে হচ্ছে মুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা। তবে দু’ একটি ইউনিয়নে  আওয়ামীলীগ ও বিএনপি’র বিদ্রোহী প্রার্থীদের মধ্যে দ্বিমুখী লড়াই হবে বলে ধারনা করা হচ্ছে। নির্বাচনে অংশ গ্রহনকারি চেয়ারম্যান, মেম্বাররা বৈশাখের খরতাপকে উপেক্ষা করে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। দিন যতই ঘনিয়ে আসছে প্রার্থীদের কাছে ততই প্রতিযোগীতার মাঠ কঠিন হয়ে আসছে। প্রার্থীরা নাওয়া-খাওয়া বাদ দিয়ে গণসংযোগ, উঠান বৈঠক, মিলাদ মাহফিলসহ সামাজিক আচার-অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন। এ ক্ষেত্রে ভোটারাও কম যান না, তারা হাটেবাজারে চায়ের দোকানে প্রার্থীদের আমল নামা দেখে যোগ্য প্রার্থীকে ভোট দেয়ার হিসেব কষছেন।

ইউনিয়ন গুলোতে কোথাও কোথাও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি নিয়েও প্রার্থী ও সাধারণ ভোটাররা চিন্তিত রয়েছেন। তবে নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন প্রশাসন। এ দিকে আওয়ামীলীগ বর্ধিত সভার মাধ্যমে ৬৫ জনের মনোনয়ন সংগ্রহ করে ৬জনকে দল নৌকা প্রতীক বরাদ্দ দেন। কেন্দ্রের ওই সিদ্ধান্ত সত্বে ৫টি ইউপিতে রয়েছে বিদ্রোহী প্রার্থী। অপর দিকে বিএনপি’র চাঁদপুর জেলার মমিন-মানিক দ্বন্দ্ব থেকে বেরিয়ে দলটি একক প্রার্থী দিতে ব্যর্থ হয়েছে। ৫টি ইউপিতে রয়েছে দলটির বিদ্রোহী প্রার্থী। একটি নির্ভর যোগ্য সূত্রে জানায়,উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ দেলোয়ার হোসেন মিয়াজী ও বিএনপি’র উপজেলা আহবায়ক আখতার হোসেন পাটওয়ারীর মুখ দেখা দেখি বন্ধ। যার ফলে দলটির দুই প্রভাবশালী ব্যক্তি তাদের মতো করে প্রার্থী দেন।

দু’ একটি স্থানে দু’জনের পছন্দের প্রার্থী এক হলেও বেশির ভাগ ইউপিতে রয়েছে তাদের পৃথক পৃথক প্রার্থী। এই রাজনৈতিক বিবাদের ফলে প্রকৃত চেয়ারম্যান প্রার্থীরা ধানের শীষ থেকে বি ত রয়েছেন।  সরজমিন সব ইউনিয়ন ঘুরে সাধারণ ভোটারদের অভিব্যক্তি থেকে জানা গেছে, সুচীপাড়া উত্তর ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী আ’লীগের উপজেলা সহ-সভাপতি ও ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি মোঃ মোস্তফা কামাল মজুমদার ও ধানের শীর্ষ প্রতীক প্রার্থী উপজেলা বিএনপি’র নেতা ও দু’ বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান মোঃ হাবিবুর রহমান পাটওয়ারীর মধ্যে প্রতিযোগীতা হবে। ওই ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মিজানুর রহমান ও কাতার প্রবাস ফেরত কাতার সেচ্চাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু ইউসুফ বাবুল এবং মোঃ নুরে আলম বিএনপি’র  বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে মাঠে রয়েছেন।

সুচীপাড়া দক্ষিণ ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউপি আ’লীগের সভাপতি গোলাম মোস্তফার সঙ্গে  সতন্ত্র (বিএনপি’র বিদ্রোহী) প্রার্থী ডাঃ আব্দুর রশিদের মুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এক্ষেত্রে বিএনপি’র ধানের শীষ প্রতিকের মোঃ আলমগীর হোসেন ও সতন্ত্র (আ’লীগের বিদ্রোহী) মোঃ মাসুদ আলমের শেষ পর্যন্ত নির্বাচনী মাঠে টিকে থাকলে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে চতুর মুখী। চিতোষী পশ্চিম ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী মোঃ আনোয়ার হোসেন ভুইয়া, ধানের শীর্ষ প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ যোবায়েদ কবির বাহাদুর, সতন্ত্র ( আ’লীগের বিদ্রোহী ) প্রার্থী মোঃ শামছুল হক মিয়াজীর ত্রিমুখী লড়াই হবে। তবে এখন পর্যন্ত ধানের শীর্ষ প্রার্থী এগিয়ে রয়েছে। চিতোষী পূর্ব ইউনিয়নে নৌকার প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ আবু ইউসুফ পাটওয়ারীর সাথে ধানের শীর্ষ মোঃ আলী হোসেনের হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে। সতন্ত্র (বিএনপি’র বিদ্রোহী) প্রার্থী মোঃ আলম বেলাল মাঠে রয়েছে।

রায়শ্রী দক্ষিণ ইউনিয়নে সতন্ত্র (আ’লীগ বিদ্রোহী) আব্দুল মবিন মোল্লা চশমা প্রতীকের সাথে সতন্ত্র ( বিএনপির বিদ্রোহী) আবু হানিফের ঘোড়ার তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। এদিকে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ডাঃ আঃ রাজ্জাক ও ধানের শীষের প্রার্থী হাবিবুর রহমান একেবারে নতুন মুখ হওয়ায় ভোটযুদ্ধে অনেকটা পিছিয়ে রয়েছেন। রায়শ্রী উত্তর ইউনিয়নে আ’লীগের নৌকার প্রতীক নিয়ে লড়ছেন  ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি মোঃ মোশারফ্ফ হোসেনর মশু। ধানের শীর্ষ প্রতীক নিয়ে ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ সেলিম পাটওয়ারী লিটন রয়েছেন শক্ত অবস্থানে।

ওই ইউপিতে জামায়াত ইসলামীর প্রার্থী ওবায়েদুল হকের মোটামুটি ভোট থাকায় তিনি প্রতি নির্বাচনে সেখানে শক্তি পরীক্ষা করছেন। এছাড়া সতন্ত্র (আ’লীগের বিদ্রোহী) প্রার্থী হিসেবে তাহেরুল ইসলাম প্রার্থী হিসেবে মাঠে রয়েছেন।  ৬টি ইউনিয়নে মোট ভোটার সংখ্যা ৮৭হাজার ৩শ’৩৭জন। পুরুষ ভোটার ৪৪হাজার ২শ’৮৫ ও মহিলা ভোটার ৪৩হাজার ৫২ জন। মোট ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৫৪টি।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/৩ মে ২০১৬

Related posts