September 26, 2018

প্রধানমন্ত্রীর ঈদ এবছরও গণভবনে

ঢাকাঃ  আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবছরও ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়সহ পরিবারের অন্য সদস্যদের নিয়ে সরকারি বাসভবন গণভবনে পবিত্র ঈদুল ফিতর পালন করবেন। অন্যান্য বছরের মতো এবারও ঈদের দিন সকালে গণভবনে তিনি সবার সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন। এ সময় তার সঙ্গে থাকবেন সরকার ও দলের গুরুত্বপূর্ণ নেতারা।

অন্যদিকে দলটির সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম সরকারি কাজে লন্ডনে অবস্থান করায় তিনি কোথায় ঈদ করবেন তা এখনও অনিশ্চিত। সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম ইউরোপীয় ইউনিয়নে যুক্তরাজ্যের থেকে যাওয়ার পক্ষে প্রচারণা চালাতে লন্ডনে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। তবে তিনি ঢাকায় ঈদ করবেন বলে জানিয়েছেন ঘনিষ্ঠজনেরা।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগের অন্য নেতার মধ্যে কেউ ঢাকায় ঈদ করবেন। আবার অনেকে নিজ নির্বাচনীয় এলাকায় ঈদ করবেন। তবে যারা ঢাকায় ঈদ করবেন তারা ঈদের পরের দিন নিজ নির্বাচনী এলাকায় সাধারণ মানুষের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্যদের মধ্যে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত নির্বাচনী এলাকা সিলেটে, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত ঢাকায়, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ নির্বাচনী এলাকা ভোলায়, সাবেক মন্ত্রী রাজিউদ্দীন আহমেদ রাজু নির্বাচনী এলাকা নরসিংদীর রায়পুরায় ঈদ করবেন।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যদের মধ্যে শেখ ফজলুল করিম সেলিম, সংসদ উপনেতা সাজেদা চৌধুরী, অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন, সতীশ চন্দ্র রায়, কাজী জাফরউল্লাহ, নূহ-উল আলম লেনিন ঢাকায় ঈদ করবেন।

কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী নির্বাচনী এলাকা শেরপুরে, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন চট্টগ্রামে ঈদ করবেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ঈদের দিন সকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারী বাসভবন গণভবনের শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে অংশ নিবেন। ঢাকায় ঈদের দিন কাটিয়ে পরের দিন নির্বাচনী এলাকা সিরাজগঞ্জ যাবেন।

দলের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদকদের মধ্যে মাহবুব উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক ঢাকায় ঈদ করবেন। আরেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি ঈদ করবেন নির্বাচনী এলাকা চাঁদপুরে।

মন্ত্রীদের মধ্যে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর নীলফামারীতে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল ঢাকায়, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ সিলেটে, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল গাজীপুরে, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া চাদঁপুরে, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম ঢাকায়, পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল কুমিল্লায়, পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী ঢাকায় এবং বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী মির্জা আজম জামালপুরে ঈদ পালন করবেন।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু ঢাকায়, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম রাজশাহীতে, তথ্য ও যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক নাটোরে ঈদ করবেন।

সাংগঠনিক সম্পাদকদের মধ্যে আহমদ হোসেন নেত্রকোনায়, মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ সিলেটে, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম মাদারীপুরে, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন জয়পুরহাটে, বি এম মোজাম্মেল ঢাকায়, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী ঢাকায় ঈদ করবেন।

দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ চট্টগ্রামে, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ মাদারীপুরে, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী নোয়াখালীতে, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. বদিউজ্জামান ভূঁইয়া ডাবলু মুন্সীগঞ্জে ঈদ করবেন। আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক লে. কর্নেল (অব.) ফারুক খান ঢাকাতেই ঈদ করবেন, তবে ঈদের আগে নির্বাচনী এলাকা থেকে ঘুরে আসবেন তিনি।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি ২ জুলাই ২০১৬

Related posts