September 24, 2018

প্রতিটি খুনের জন্য একটি করে ফাঁসির মঞ্চ—ইনু

জাহিদুর রহমান
ঝিনাইদহ থেকেঃ  
ঝিনাইদহে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, কোন হত্যাকারীর ছাড় নেই। প্রতিটি খুনের জন্য একটি করে ফাঁসির মঞ্চ প্রস্তুত রয়েছে। তিনি অভিযোগ করেন, ধারাবাহিক চক্রান্তের অংশ হিসেবে বিরোধীরা সরকার উৎখাতের চক্রান্ত করছে।

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু মঙ্গলবার দুপুরে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার কোরাতিপাড়া গ্রামে পুরোহিত আনন্দ গোপাল গাঙ্গুলী নন্দ হত্যার প্রতিবাদে আয়োজিত এক সমাবেশে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন আমি তেতুল হুজুরকে তেতুল হুজুর বলি, রাজাকারদের রাজাকার বলি। আগুন সন্ত্রাসীদের আগুন সন্ত্রাসী বলি। আমি বেশি কথা বলি না। যা বলি সত্য বলি।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়া আগুন সন্ত্রাসের মাধ্যমে মানুষ খুন করে সরকার উৎখাতে ব্যার্থ হয়ে নতুন করে ষড়যন্ত্রে নেমেছে। তিনি জামাতিদের সাথে নিয়ে গুপ্ত হত্যায় লিপ্ত। বিরোধীরা আনন্দ গোপালের মতো নিরীহ গরীব মানুষ, পুরোহিত, খ্রীষ্টান, পীর, মসজিদের ইমাম, যাজক ও মসজিদের মোয়াজ্জিন হত্যার মাধ্যমে সরকার উৎখাত করতে চায়। কিন্তু তারা সফল হবে না।

ইনু আরো বলেন, নির্বাচনের খেলায় খালেদা জিয়া পরাজিত হয়েছেন। ২০১৯ সালের নির্বাচনে তিনি অংশ গ্রহন না করলে আবারো ফাঁকা মাঠে আমরা গোল দিয়ে সরকার গঠন করবো। নলডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ইরফান আলী বিশ্বাসের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম পুলিশ প্রশাসনের উদ্দেশ্যে বলেন,
এখানে চাকরী করতে হলে খুনদের গ্রেফতার করতে হবে। খুনিদের গ্রেফতারের জন্যই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাদের এখানে পাঠিয়েছেন। তিনি বলেন খুনিরা কাপুরুষ। তারা যে নির্মমতা দেখিয়েছে তা ক্ষমার অযোগ্য।

নাসিম বলেন, বিরোধীরা সামনের নির্বাচনে যাবে না বলেই আবারো গুপ্ত হত্যায় লিপ্ত। অনুষ্ঠানে বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, দেশে ইসলামী খেলাফৎ কায়েম করতে একের পর এক হত্যাকান্ড ঘটানো হচ্ছে। তিনি বলেন, হত্যাকারীরা দেশের নয় কোন এলাকার নয়। এরা হত্যাকারী। আমরা এদের বিচার করবো। বাংলাদেশকে তছনছ হতে দেব না। আমরা ঘাতকদের বিচার করেত সদা প্রস্তুত আছি।

প্রতিবাদ সমাবেশে অন্যানের মধ্যে ঝিনাইদহ-১ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল হাই, নিাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজিম আনার, ন্যাপ নেতা এড এনামুল হক, জেলা প্রশাসক মাহবুব আলম তালুকদার, পুলিশ সুপার আলতাফ হোসেন, হিন্দু বৈদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যাপক নিম চন্দ্র ভৌমিক ও জাসদ নেতা ফজলুর রহমান খুররম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদ ও পৌর মেয়র সাইদুল করিম মিন্টু এবং সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান কনক কান্তি দাস। অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম কোরতিপাড়া গ্রামে ১০ শয্যার একটি হাসপাতাল ও রাস্তা পাকা করার আশ্বাস দেন।
প্রতিবাদ সমাবেশ শেষে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল পরিদর্শন করেন এবং বিকালে ঝিনাইদহ সার্কিট হাউসে চিকিৎসকদের মত বিনিময় সভায় যোগ দেন।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি ১৪ মে ২০১৬

Related posts