September 23, 2018

প্রচারণা সহিংসতার দিকে যাচ্ছে!

পৌর নির্বাচনের প্রচারণা সহিংসতার দিকে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে কয়েক জায়গায় সংঘর্ষ, ভাঙচুর ও আগুন দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। কোথাও আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর সমর্থকদের সঙ্গে বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের, কোথাও বিএনপির দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। কোথাও আওয়ামী লীগ সমর্থকরা বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থীর উপর হামলা চালিয়েছে। এসব সহিংস ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে উঠছে নির্বাচনী পরিবেশ।

সাভারে বিএনপির মেয়র প্রার্থীর মতবিনিময় সভায় হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এসময় হামলায় আহত হয়েছে অন্তত ১০ জন। গতকাল বিকালে বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী বদিউজ্জামান বদির বাসায় এঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, নাশকতার তিনটি মামলায় উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে সাভার পৌরসভা নির্বাচনে ব্যাংক কলোনি এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণায় নামেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী বদিউজ্জামান বদি। এতদিন তিনি গ্রেপ্তার আতঙ্কে নির্বাচনী প্রচারণায় নামেননি। বিকালে তিনি নিজ বাসায় দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় করছিলেন। এসময় দুর্বৃত্তরা তার বাসা লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুঁড়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে এবং চেয়ার টেবিল, বাড়িঘর ও কয়েকটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে পালিয়ে যায়।

কুমিল্লা প্রতিনিধি জানান, চৌদ্দগ্রামে দুই মেয়র প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও যানবাহনে ব্যাপক ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। সংঘর্ষে পুলিশের এসআই মো:  হোসাইন, কনস্টেবল মনির হোসেনসহ উভয় প্রার্থীর অর্ধশতাধিক আহত হয়েছে। বিকালে চৌদ্দগ্রাম বাজারে আওয়ামী লীগ দলীয় মেয়র প্রার্থী বর্তমান মেয়র মিজানুর রহমান ও দলের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী ইমাম হোসেন পাটোয়ারী এনামের কর্মী- সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে অতিরিক্ত পুলিশের পাশাপাশি ঘটনাস্থলে বিজিবি ও র‍্যাব সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে।

ইমাম হোসেন পাটোয়ারী এনামের সমর্থকরা বাজারে মিছিল বের করে। এ সময় মিজানুর রহমানের সমর্থনে আলকরা ইউপি চেয়ারম্যান ইসমাইল হোসেন বাচ্চু গণসংযোগ শেষে ফেরার পথে মুখোমুখি হয়। এতে উভয় পক্ষের মধ্যে প্রথমে বাকবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে ফাঁকা গুলির শব্দে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ইটপাটকেল নিক্ষেপ শুরু হয়। এ সময় উপজেলা সদরের পুরাতন ইউপি ভবনের সামনে থাকা দুটি মাইক্রোবাস ও রাস্তায় থাকা একটিসহ ৩ মাইক্রোবাস ও ১২টি মোটরসাইকেলে আগুন দেয়া হয়। প্রায় ২ ঘণ্টাব্যাপী চলা সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ফাঁকা গুলি ও শতাধিক ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।

এছাড়াও বাজারে ব্যবসায়ী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক আক্তার হোসেন পাটোয়ারীর পাইকারি মুদি মালের দোকানসহ বেশ কয়েকটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠা ও ফুটপাতের দোকানসহ অর্ধশতাধিক দোকানে অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে। আতংকিত ব্যবসায়ীরা দোকানপাট বন্ধ করে দেয়। এ সময় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পুরাতন ও নতুন দুটি সড়কেই প্রায় ২ ঘন্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ ছিল। এতে মহাসড়কের উভয় পাশে কয়েকশ যানবাহন আটকা পড়ে।

সরিষাবাড়ীতে বিএনপি’র দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) সংবাদদাতা জানান, প্রচারণাকে কেন্দ্র করে সকালে বিএনপি’র দু’গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও গুলি বিনিময় হয়। এতে ২ ব্যক্তি গুলিবিদ্ধসহ উভয় পক্ষের ২০ ব্যক্তি আহত হয়।

প্রচারণাকে কেন্দ্র করে বিএনপি’র মেয়র প্রার্থী ফয়েজুল কবীর তালুকদার শাহীনের সমর্থকদের সাথে তৃণমূল বিএনপি’র (বিদ্রোহী) স্বতন্ত্র প্রার্থী রুহুল আমীন সেলিমের সমর্থকদের সংঘর্ষ বাধে। এ সময় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়াসহ গুলি ছোঁড়ার ঘটনা ঘটে। এতে পৌর ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ও যুবদলের সদস্য পাজেন আলী গুলিবিদ্ধ হয়। গুলি ছোঁড়ার বিষয়ে এক পক্ষ অন্য পক্ষকে দায়ী করেছে। এলাকায় র্যাবের টহলের পাশাপাশি অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।

রামগতিতে কাউন্সিলর প্রার্থীকে পিটিয়েছেন প্রতিদ্বন্দ্বীর ছেলে

রামগতি (লক্ষ্মীপুর) সংবাদদাতা জানান, রামগতি পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগ সমর্থিত কাউন্সিলর প্রার্থী প্রদীপ মজুমদারকে পিটিয়ে আহত করেছেন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর ছেলেসহ সমর্থকরা। রবিবার রাতে গণসংযোগ শেষে বাড়ি ফেরার পথে পৌরসভার কিল্লার পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহত প্রদীপকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার হাতসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে জখমের চিহ্ন রয়েছে। প্রদীপ মজুমদার জানান, তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী জয়নাল আবদীনের ছেলে দিদারসহ কয়েকজন সমর্থক তার গতিরোধ করেন। এ সময় তারা তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে গতকাল সোমবার দুপুরে সেখান থেকে উন্নত চিকিত্সার জন্য তাকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

জয়নাল আবদীন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘এ ঘটনায় আমার ছেলে বা কর্মী-সমর্থক কেউই জড়িত নয়। উত্তেজিত জনতার সঙ্গে প্রদীপ মজুমদারের হাতাহাতি হয়েছে বলে শুনেছি।’ রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন জানান, ঘটনাটি তিনি শুনেছেন। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।

নান্দাইলে নির্যাতনের অভিযোগে পুলিশ সদস্য ক্লোজ

নান্দাইল (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা জানান, আচরণ বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগে আওয়ামী লীগ দলীয় মেয়র প্রার্থী রফিক উদ্দিন ভুঁইয়ার কর্মী মো. শহীদ মিয়াকে পুলিশ নির্যাতন করায় অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য সুজা উদদৌলাহকে ক্লোজ করা হয়েছে। নান্দাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মাদ শাহানুর আলম গতকাল সোমবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। গত মঙ্গলবার দৈনিক ইত্তেফাকের প্রথম পাতায় ‘নান্দাইলে আওয়ামী লীগ কর্মীর হাত-পা ভেঙে দিয়েছে পুলিশ’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হলে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ এ পদক্ষেপ নেয়।

বাগেরহাটের আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থীর বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ

খুলনা অফিস জানায়, আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী খান হাবিবুর রহমানের সমর্থকরা ভোটারদের মারপিট, হামলা, ভাঙচুর ও হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মীনা হাসিবুল হাসান শিপন। তিনি বলেন, খান হাবিবুরের সমর্থকরা প্রকাশ্যে নির্বাচন আচরণ বিধি লঙ্ঘন করে তার (শিপন) সমর্থকের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা, মারপিট ও হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশন, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে অভিযোগ দিলেও তারা কোন পদক্ষেপ নেননি। গতকাল প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব অভিযোগ করেন।

পাইকগাছার ওসির অপসারণ দাবি বিএনপির

খুলনা মহানগর ও জেলা বিএনপির সমন্বয়ে গঠিত আসন্ন পৌরসভা নির্বাচন সমন্বয় কমিটির নেতারা পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আশরাফুজ্জামানের অপসারণের দাবিতে স্মারকলিপি দিয়েছে। গতকাল সমন্বয় কমিটির প্রধান ও মহানগর বিএনপির সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু ও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শফিকুল আলম মনার নেতৃত্বে সমন্বয় কমিটির নেতারা খুলনা জেলা প্রশাসকের কাছে এ স্মারকলিপি প্রদান করেন। ইত্তেফাক

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts