November 21, 2018

প্রকল্পের অব্যবহৃত অর্থ ফেরত দিতে হবে নাঃ পরিকল্পনামন্ত্রী

ফাইল ছবিঃ পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল

প্রকল্প বাস্তবায়ন দ্রুত ও সহজতর করার লক্ষ্যে এক প্রকল্পের অব্যবহৃত অর্থ প্রয়োজনে একই মন্ত্রণালয়ের অন্য প্রকল্পে খরচ করা যাবে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বৃহস্পতিবার শের ই বাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে এডিপি বাস্তবায়ন বিষয়ে সব মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং পরিকল্পনা কমিশনের সদস্যদের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

নভেম্বর পর্যন্ত এডিপি বাস্তবায়ন বেশ সন্তোষজনক উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে জিডিপি ৭ ভাগে উন্নীত করা এবং মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে রাখা। প্রথম তিন মাস বৃষ্টির কারণে এডিপি বাস্তবায়নের হার কম থাকলেও এর পরেই এডিপি বাস্তবায়নের গতি বেড়েছে।’

পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন, ‘শতভাগ এডিপি বাস্তবায়ন সম্ভব হলে প্রত্যাশা পূরণ সম্ভব। আমরা সে লক্ষ্যেই কাজ করছি। বৈঠকে প্রকল্প বাস্তবায়ন মনিটরিং জোরদার করাসহ প্রকল্প বাস্তবায়নের সাথে সম্পৃক্ত কর্মকর্তাদের পেশাগত দক্ষতার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করা হয়েছে।’

বৈঠকে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব এবং সচিবরা প্রকল্প বাস্তবায়নের বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরেন। একই সঙ্গে  প্রকল্প বাস্তবায়ন ত্বরান্বিত করতে করণীয় সম্পর্কেও মত দেন।

এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান, পরিকল্পনা বিভাগের সচিব মো. সফিকূল ইসলাম প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত কয়েক বছরে বেশ কয়েকটি মন্ত্রণালয় বিভিন্ন প্রকল্পে বরাদ্দ অর্থ খরচ করতে পারেনি। সে অর্থ পরে অর্থমন্ত্রণালয়ে ফেরত দেয়া হয়। কিন্তু নতুন করে অন্য প্রকল্পে অর্থ বরাদ্দ পেতে অনেক সময় দীর্ঘসূত্রিতার সৃষ্টি হয় ফলে প্রকল্প বাস্তবায়ন বিলম্বিত হয়।

পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন, পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের (আইএমইডি) প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, চলতি অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়ন প্রায় শূন্যের কোঠায়। অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে মোট ১ হাজার ২৮৭টি প্রকল্পের মধ্যে ৪৬৬টি প্রকল্পের ১০ শতাংশের কম বাস্তবায়ন হয়েছে। একই সময়ে ৩৫৪টি প্রকল্পের বাস্তবায়নের অগ্রগতি শূন্য। অর্থাৎ ৩৫৪টি প্রকল্পে ৭ মাসে কোনো টাকাই খরচ হয়নি।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts