September 20, 2018

‘পাকিস্তানীরা যে ষড়যন্ত্র করেছে বিএনপি সেই ষড়যন্ত্রে লিপ্ত’

সাইয়েদ কাজল, বরিশালঃ নৌ মন্ত্রী শাহজাহান খান বলেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে যেমন করে মুক্তিযুদ্ধ করে দেশ স্বাধীন করেছি, ঠিক তেমনি তার সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যুদ্ধাপরাধীমুক্ত দেশ গড়তে আবারো মাঠে নামতে হবে। মুক্তিযুদ্ধ এখনও শেষ হয়নি। বিএনপি-জামায়াতের আমলে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ ছিল। সেই বিচার শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে পুনরায় শুরু করেছেন। মানুষের মনে তিনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে জাগ্রত করেছেন। শনিবার সন্ধ্যায় বরিশাল সার্কিট হাউজে জাতীয় ও আšতর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস ও উগ্র ধর্মান্ধতা প্রতিরোধে ঐক্যবদ্ধ হতে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভা ও এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন।

মুক্তিযুদ্ধ চেতনা জাগরণ ম বরিশাল জেলা শাখার সভাপতি কেএসএ মহিউদ্দিন মানিক বীরপ্রতীকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি আরো বলেন, দুটি বিষয়ের উপরে জোর দিয়ে দেশনেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই প্রচেষ্টা শুরু হয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় সম্মিলিত হয়ে ২১টি দাবি নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে মুক্তিযোদ্ধা ও সর্ব¯তরের মানুষ। এরমধ্যে ২০১৩-১৫ সালে বিএনপি-জামায়াত জোট যে গণহত্যা করেছিল তাদের বিচারের দাবি এবং পাকি¯তানীদের বাংলাদেশের বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত চলা ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সাধারণকে সচেতন করে আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। এই দাবি পূরণে জেলা-উপজেলা পর্যায়ে গণসচেতনতা বৃদ্ধির মাধ্যমে আন্দোলন জোরদার করতে হবে বলে জানান নৌ মন্ত্রী শাহজাহান খান।
এসময় তিনি আরো বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের সময় পাকি¯তানিরা বারবার নিন্দা জানিয়েছে। তারা যে এখনো জঙ্গিবাদকে সমর্থন করে তা বারবার আচরণের মাধ্যমে প্রমাণ দিচ্ছে। খালেদা জিয়া যুদ্ধাপরাধীদের মদদ দিয়ে তাদের এই দেশের রক্তমাখা পতাকাবাহী গাড়িতে চড়িয়েছিলেন। এই খুনির দলেরা আবারো একত্রিত হয়ে বিভিন্ন ধরণের ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। যার মধ্যে রয়েছে জঙ্গিবাদ, টার্গেট কিলিং, মন্দিরে আগুন দিয়ে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা তৈরির করার মত জঘন্যতম আচরণ। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে একবার দেশকে থমকে দিয়েছিল এই ষড়যন্ত্রকারীরা। আবারও শেখ হাসিনাকে হত্যার উদ্দেশ্যে এসকল কার্যক্রম একের পর এক করে যাচ্ছে তারা। তারা জানে শেখ যদি না থাকে তবে বাঙ্গালীর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধ্বংস হয়ে যাবে। পাকি¯তান যে সকল ষড়যন্ত্র করছে তার সাথে বিএনপি বিভিন্নভাবে সম্পৃক্ত রয়েছে। তাই আন্দোলনের ধাপ হিসেবে ২৯১ জন পাকি¯তানি সেনার তালিকা তৈরি করা হয়েছে যা শীঘ্রই সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশ করা হবে বলে বলেন মন্ত্রী। কোন যুদ্ধাপরাধী বিচারের বাইরে থাকবে না। এছাড়া নতুন আইন প্রণয়নের প্র¯তাব রাখা হবে যার মধ্যে থাকবে বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটাক্ষকারীদের বিচারের বিধান।
সভায় উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে মন্ত্রী বলেন নতুন প্রজন্মকে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সম্পর্কে অবহিত করুন। তাদের জানান কিভাবে লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে আমাদের এই স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে যাতে করে কখনোই ষড়যন্ত্রকারীরা কূট উদ্দেশ্যে সফলতা লাভ করেন।
এসময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান ইসমত কাদির গামা, সাংগঠনিক সম্পাদক এবিএম সুলতান আহমেদ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ বরিশাল জেলা ইউনিটের কমান্ডার শেখ কুতুব উদ্দিন আহমেদ, পটুয়াখালী ইউনিট কমান্ডার এমএ হালিম, বরিশাল মহানগর কমান্ডার মোকলেসুর রহমান।

বরিশালের বাবুগনজ হাসপাতালে ১৬ দিন যাবৎ বিদ্যুৎ পানি বিহীন
বরিশাল থেকে সাইয়েদ কাজল ঃ বরিশাল জেলার বাবুগনজ উপজেলার একমাত্র ৩১ শয্যা বিশিষ্ঠ স্বা¯হ্য কেন্দ্র টি তে গত ১৬ দিন যাবৎ বিদুৎ পানি না থাকায় হাসপাতালের স্বা¯হ্য সেবা ভেংগে পরেছে । রোগীরা হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা না পেয়ে হাসপাতাল ছেড়ে অন্যত্র চলে যাচ্ছে প্রতিদিন । বিদ্যুৎ না থাকায় পাম্প থেকে পানি তোলা যাচ্ছে না হাসপাতালের টেকিং তে ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে রোগীদের । হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে গত ৪ নভেম্বর থেকে একটি ট্রান্সফরমার নষ্ট হওয়ায় এ র্দুভোগ পোহাতে হচ্ছে । হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বরিশাল পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সাথে যোগাযোগ করলে তারা জানানা ট্রান্সফরমার নষ্ট হওয়ায় এ সমস্যা হয়েছে । ঢাকায় উর্ধ্ধতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করা হয়েছে । প্রকৌশলীদের পাঠানোর ব্যব¯হা করা হচ্ছে । যদি ওবরিশাল বিভাগীয় স্বা¯হ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর এর কর্মকর্তা রা এবং পল্লী বিদ্যুৎ এর কমকর্তারা গত বৃহস্পতিবার হাসপাতাল পরিদর্শন করে গেলে ও এ রিপোর্ট লেখা (শনিবার) পর্য্যন্ত কোন বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়া হয় নি । হাসপাতালের স্বা¯হ্য কর্মকর্তা শুবংকর চত্র“বর্তী জানান হাসপাতালে ¯হাপিত ট্রাান্সফরমার এর জন্য পল্লী বিদ্যুৎ কে প্রতিমাসে ১০ হাজার টাকা দিতে হয় । তিনি জানান পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির গাফলতির কারনে এ সমস্যা পোহাতে হচ্ছে। বর্তমানে হাসপাতালে মাত্র ৬ জন রোগী রয়েছে । অন্যরা হাসপাতাল ছেড়ে চলে গেছে ।
======================== সাইয়েদ কাজল ।

Related posts