September 24, 2018

পাংশায় জন্ম নিল এক অদ্ভূত শিশু!

ঢাকাঃ  রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলায় একটি প্রাইভেট ক্লিনিকে অদ্ভূত আকৃতির শিশুর জন্ম হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে শহরের নিউরো ডায়াগনস্টিক সেন্টার এন্ড হাসপাতালে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে এক কন্যা শিশুর জন্ম হয়।

উপজেলার পৌর শহরের নারায়ণপুর গ্রামের শাহজাহান বিশ্বাসের স্ত্রী শাহিনুর বেগম শিশুটিকে জন্ম দেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, শিশুটি তার দাদির কোলে রয়েছে। শিশুটির অস্বাভাবিক বড় দুটি চোখ,মাথার মগজ বের হয়ে আছে। শিশুটির ওজন জানা যায় ৫ কেজি।

শিশুটির দাদী রাবেয়া বেগম জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে তার পুত্রবধূ শিশুটির জন্ম দেয়।শিশুটির দেহ ঠিক থাকলেও মাথায় সমস্যা নিয়ে জন্ম নেয়। তিনি আরও জানান, আমার বোন এ ধরণের দুটি বাচ্চা জন্ম দিয়েছিলো। বাচ্চা দুটি জন্মের একদিন ও দুইদিন পরে মারা যায়।

পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সের (ইওসি) ডাঃ আঞ্জুয়ারা সুমি জানান, শিশুটি এনেনসিফ্যালি রোগে আক্রান্ত। মস্তিস্ক, মাথার খুলি, এবং মাথার খুলি যে ভ্রূণ উন্নয়ন ঘটে, তার একটি বড় অংশের অনুপস্থিতির কারণে এটি দেখা দেয়। এটি একটি মস্তিস্ক সংক্রান্ত ব্যাধী যেখানে একটি নিউরাল টিউবজনিত ত্রুটি ঘটে। অনেক সময় বংশগত কারণেও এ ধরনের শিশু জন্ম নেয়। সাধারণত এ ধরনের জন্ম নেওয়া শিশু একদিন বাঁচে।

Related posts