September 24, 2018

পাঁচ মিনিটে মুছে যাবে গোটা পাকিস্তান : ভারত

পাকিস্তান

পাকিস্তান পাঁচ মিনিটে দিল্লিতে পরমাণু হামলা চালাতে পারে ঠিকই। কিন্তু ভারত পাঁচ মিনিটে গোটা পাকিস্তানকে মুছে দিতে পারে। পাকিস্তানের হুঁশিয়ারির জবাব দিলেন ভারতের প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞরা। পাক পরমাণু বিজ্ঞানী আবদুল কাদির খান শনিবার বলেছিলেন, চাইলে পাঁচ মিনিটেই ভারতের রাজধানীতে পরমাণু হামলা চালাতে পারে পাকিস্তান। ভারতের প্রভাবশালী পত্রিকা আনন্দবাজারের অনলাইন পোর্টালে এক প্রতিবেদনে এমন খবর জানা গেছে। ভারতের হাতে যেসব পরমাণু অস্ত্রবাহী ক্ষেপণাস্ত্র এখন রয়েছে, পৃথিবীর বিশাল অংশ তার পাল্লার মধ্যে। অগ্নি-৫ ক্ষেপণাস্ত্র প্রায় ৬০০০ কিলোমিটার উড়ে গিয়ে পরমাণু হামলা চালাতে সক্ষম। অর্থাৎ পাকিস্তানের কোনো অংশই ভারতের পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্রগুলোর পাল্লার বাইরে নয়। ইসলামাবাদ, লাহৌর, মুলতান, করাচি, রাওয়ালপিন্ডি, পেশোয়ার, কোয়েটা— পাকিস্তানের এই গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলো ভারত থেকে মোটেই খুব দূরে নয়। ওয়াগা সীমান্ত থেকে পাকিস্তানের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর লাহৌর মাত্র ২১ কিলোমিটার দূরে। রাজধানী ইসলামাবাদের দূরত্ব ৩৭৪ কিলোমিটারের মতো।
মুলতান, কোয়েটা, পেশোয়ার, করাচি, রাওয়ালপিন্ডির মতো পশ্চিম, উত্তর-পশ্চিম এবং দক্ষিণ-পশ্চিম পাকিস্তানের শহরগুলোর দূরত্ব ভারত থেকে ৭৫০-৮০০ কিলোমিটার। অর্থাৎ ভারতের স্বল্পপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রগুলোই পাকিস্তানের সিংহভাগ ছাই করে দিতে পারে। দূরবর্তী কোনো প্রান্তে আঘাত হানতে চাইলে মিডিয়াম রেঞ্জ বা মাঝারি পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রই যথেষ্ট। আইআরবিএম বা আইসিবিএম-এর মতো বিশাল বিশাল পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করার দরকারই পড়বে না ভারতের। এর অর্থ হলো, পাকিস্তান যদি পাঁচ মিনিটে দিল্লিতে পরমাণু হামলা চালাতে পারে তাহলে ভারত পাঁচ মিনিটে গোটা পাকিস্তানকেই মানচিত্র থেকে মুছে দিতে পারে। ঠিক সেই কথাটাই পাক পরমাণু বিজ্ঞানীকে মনে করিয়ে দিয়েছেন ভারতীয় বিশেষজ্ঞরা। একটি হিন্দি দৈনিককে দেয়া সাক্ষাৎকারে ভারতের সাবেক সেনাপ্রধান নির্মলচন্দ্র ভিজ বলেছেন, ‘ভারত শুধু পাকিস্তানের রাজধানীকে নয়, গোটা পাকিস্তানকেই টার্গেট বানাতে সক্ষম।’ পাঁচ মিনিটে হামলা সম্ভব বলে কাদির খান যে মন্তব্য করেছেন, তাও অসম্ভব বলে ভিজ জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘ধরে নিলাম কালকে সকালেই পাকিস্তানের সেনাপ্রধান ভারতে পরমাণু হামলা চালানোর নির্দেশ দিলেন। সে ক্ষেত্রেও ভারতে বোমাটা পড়তে অন্তত ৬ ঘণ্টা সময় লাগবে। কারণ সংঘর্ষবিরতি সংক্রান্ত নজরদারি সরিয়ে তবেই হামলা চালাতে হবে।’ পাকিস্তান থেকে পরমাণু অস্ত্র ছোড়ার পর তা ভারতে পৌঁছতে পাঁচ মিনিট সময় লাগবে ঠিকই, কিন্তু হামলা চালানোর আগে সংঘর্ষবিরতি সংক্রান্ত নজরদারি সরানোর যে প্রক্রিয়া, সেসব মেটাতেই ঘণ্টা ছয়েক সময় লেগে যায়। তার মধ্যে পাল্টা পরমাণু হামলা চালিয়ে গোটা পাকিস্তানকে মুছে দেয়ার প্রস্তুতি নিয়ে ফেলতে পারে ভারত। পাশাপাশি নিজেদের মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেমকেও সম্পূর্ণ সক্রিয় করে ফেলতে পারে ভারত, যা মাঝ আকাশেই রুখে দেবে ধেয়ে আসা পাক ক্ষেপণাস্ত্রকে। ভারতীয় বিমানবাহিনীর সাবেক

Related posts