November 18, 2018

পরস্পরের বিবেচনাবোধ নিয়ে হিলারি-স্যান্ডার্সের প্রশ্ন

নিউ ইয়র্কে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া প্রাইমারি বাছাইয়ের আগে অনুষ্ঠিত বিতর্কে পরস্পরের বিবেচনাবোধ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটদের হয়ে মনোনয়ন প্রত্যাশী হিলারি ক্লিনটন ও বার্নি স্যান্ডার্স। বৃহস্পতিবার ওয়াল স্ট্রিট ব্যাংক, আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণ ও ন্যুনতম মজুরিসহ বিভিন্ন ইস্যুতে বিবাদে জড়ান তারা। রিপাবলিকানদের প্রার্থিতা বাছাইয়ের দৌড়ে ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণের পদ্ধতি প্রাধান্য পেলেও প্রার্থিতা বাছাই প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর থেকে অনেক দিন পর্যন্তই ডেমোক্র্যাটরা একে অপরকে আক্রমণ করা থেকে বিরত ছিলেন। তবে ডেমোক্র্যাটদের মধ্যে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত বিতর্কে দেখা গেছে পুরোনো চিত্র। সিএনএন এর বিতর্কে হিলারি ও স্যানডার্স বিতর্কে অংশ নিয়ে বার্নি স্যান্ডার্স বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট হওয়ার মতো অভিজ্ঞতা আর বুদ্ধিমত্তা কি হিলারি ক্লিনটনের আছে? এ প্রশ্ন যদি করা হয় তবে আমি বলব অবশ্যই আছে। কিন্তু তার বিবেচনাবোধ নিয়ে আমার সন্দেহ রয়েছে।’ হিলারি ক্লিনটনের বিবেচনাবোধ নিয়ে প্রশ্ন তোলা ছাড়াও ওয়াল স্ট্রিটের সঙ্গে তার আর্থিক সম্পর্ক, একটি বিনিয়োগকারী ব্যাংককে টাকার বিনিময়ে বক্তব্য প্রদান এবং ইরাক যুদ্ধে হিলারির সমর্থন দেওয়ারও সমালোচনা করেন স্যান্ডার্স। হিলারিও স্যান্ডার্সের বিবেচনাবোধ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ন্ত্রণ প্রশ্নে স্যান্ডার্সের আগের অবস্থানের কথা মনে করিয়ে দিয়ে হিলারি বলেন, স্যান্ডার্স একসময় আগ্নেয়াস্ত্র নির্মাতাদেরকে আইনি দায় থেকে রেহাই দেওয়ার পক্ষে ভোট দিয়েছিলেন। নিজের প্রস্তাবিত নীতিমালাগুলো আদৌ কতটা বাস্তবায়ন সম্ভব সে কথা স্যানডার্স ভেবেছেন কিনা সে প্রশ্নও তোলেন হিলারি। সম্প্রতি নিউ ইয়র্ক ডেইলি নিউজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে স্যানডার্স নিজের প্রস্তাবগুলোর ব্যাপারে সানডার্স নির্দিষ্ট করে বলতে পারেননি উল্লেখ করে হিলারি বলেন, ‘সমস্যা চিহ্নিত করা সহজ কিন্তু তা সমাধানের চেষ্টা ভিন্ন ব্যাপার।’

সাম্প্রতিক সময়গুলোতে এ দুই প্রেসিডেন্ট প্রার্থিতা প্রত্যাশী একে অপরের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলায় তাদের মধ্যকার এ লড়াই ক্রমাগত নেতিবাচকতার দিকে মোড় নিচ্ছে। সর্বশেষ যে আটটি অঙ্গরাজ্যে ডেমোক্র্যাটদের প্রার্থিতা বাছাই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়েছে তার মধ্যে ৭টিতেই জয় পেয়েছেন স্যান্ডার্স। তবে প্রার্থিতা বাছাইয়ের দৌড়ে স্যান্ডার্স থেকে এখনও বেশ খানিকটা এগিয়ে রয়েছেন হিলারি ক্লিনটন।

আরও পড়ুন: বাংলাদেশে আইএস-এর নতুন ফ্রন্ট, পরিচালনায় আবু ইব্রাহিম

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট পদের জন্য প্রার্থিতা নির্বাচনের প্রক্রিয়াটি বেশ জটিল। প্রাইমারি ও ককাস নামের দুইটি পদ্ধতির মধ্য দিয়ে সেখানে প্রার্থিতা চূড়ান্ত করার প্রাথমিক পর্ব সম্পন্ন হয়। প্রাইমারি হচ্ছে প্রথাগত নির্বাচন, যেখানে দিনব্যাপী গোপন ব্যালটে ভোট অনুষ্ঠিত হয়। আর ককাস হচ্ছে দলের নিবন্ধিত ভোটার ও কর্মীদের সভা, যা পূর্বনির্ধারিত দিন ও ক্ষণে অনুষ্ঠিত হয়। কোনও কোনও অঙ্গরাজ্যে শুধু প্রাইমারি নির্বাচন হয়, আবার কোনও রাজ্যে শুধু ককাস নির্বাচন হয়। কোনও রাজ্যে প্রাইমারি ও ককাস দুটিই হয়। এবার এই প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে ১ ফেব্রুয়ারি। শেষ হওয়ার কথা ১৪ জুন। প্রাইমারি বা ককাস নির্বাচন সাধারণত সরাসরি নির্বাচনের সঙ্গে সম্পর্কিত নয়। ভোটাররা সরাসরি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে কে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন তা নির্ধারণের সুযোগ পাওয়ার পরিবর্তে তারা নির্ধারণ করেন যে, প্রতিটি দলের কনভেনশনে দলের কোন প্রার্থী কতজন ডেলিগেট সংগ্রহ করতে পারলেন। চূড়ান্ত দলীয় কনভেনশনে ওই ডেলিগেটদের ভোটেই চূড়ান্ত প্রার্থিতা নিশ্চিত করা হয়।

হিলারি ও স্যানডার্স

এবারের নির্বাচনের প্রার্থিতা বাছাইয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ডেমোক্র্যাটদের ডেলিগেট সংখ্যা ৪,৭৬৩ জন। এদের মধ্যে প্রাইমারি আর ককাস থেকে নির্বাচিত ডেলিগেটের সংখ্যা হবে ৪২৫১ জন। আর সুপার ডেলিগেটের সংখ্যা ৭১২ জন। মোট ৪৭৬৩ জন সাধারণ ও সুপার ডেলিগেটের মধ্যে অর্ধেকের বেশি সংখ্যক ডেলিগেট যাকে ভোট দেবেন তিনিই প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়বেন ডেমোক্র্যাটদের হয়ে। সে হিসেবে প্রার্থিতা নিশ্চিত করতে একজন ডেমোক্র্যাট মনোনয়ন প্রত্যাশীকে পেতে হবে ২৩৮৩ জন ডেলিগেটের সমর্থন। জুলাইয়ে ফিলাডেলফিয়ায় প্রার্থী বাছাইয়ে অনুষ্ঠিত হবে ডেমোক্র্যাটিক ন্যাশনাল কনভেনশন। সেই সম্মেলনেই ডেলিগেট আর সুপার ডেলিগেটদের ভোটে নির্ধারিত হবেন ডেমোক্র্যাটদের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী।

আরও পড়ুন: জাপানে অগ্ন্যুৎপাত এবং ‘আফটার শক’-এর ভীতি, বহু মানুষের চাপা পড়ে থাকার শঙ্কা

এপির সবশেষ তথ্য অনুযায়ী ডেলিগেট সংগ্রহের ক্ষেত্রে হিলারি এ পর্যন্ত পেয়েছেন ১৭৫৮ জনের সমর্থন। আর স্যান্ডার্স নিশ্চিত করতে পেরেছেন ১০৬৯ জনের সমর্থন। এখনও সমর্থন দেওয়ার বাকি ১৯৩৮ জন ডেলিগেট। প্রার্থিতা নিশ্চিত করতে গেলে হিলারিকে এর মধ্যে পেতে হবে ৬২৫ জনের সমর্থন। আর স্যান্ডার্সকে পেতে হবে আরও ১৩১৪ জনের সমর্থন।

Related posts