December 11, 2018

পরকিয়ার জেরে ঘুমন্ত যুবলীগ নেতাকে হত্যা!

210রহিম রেজা,ঝালকাঠিঃ   ঝালকাঠির রাজাপুরে পরকিয়া প্রেমের জেরে মহসিন জোমাদ্দার (৪৪) নামে এক যুবলীগ নেতাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার পশ্চিম নৈকাঠি গ্রামের এ ঘটনায় গতকাল মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ওই যুবলীগ নেতার লাশ উদ্ধারের সময় এ ঘটনায় অভিযুক্ত ওই গ্রামের মৃত হালিম জোমাদ্দারের স্ত্রী মাকসুদা বেগম (৪০) কেও তার ঘর থেকে আটক করে পুলিশ। এর আগে সোমবার রাতের কোনো এক সময় অভিযুক্ত মাকসুদা বেগমের ঘরে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত মহসিন জোমাদ্দার সাতুরিয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলার পশ্চিম নৈকাঠি গ্রামের মৃত মোতালেব জোমাদ্দারের ছেলে।

মহসিনের মা রাজিয়া বেগম, ভাবি রুমা বেগম ও ভাতিজী তানিয়া আক্তার অভিযোগ করে জানান, মহসিন ও বিধবা মাকসুদা বেগম সম্পর্কে দেবর-ভাবি। প্রায় তিন মাস থেকে এলাকার মানুষকে জানায় তারা ২ জনে বিয়ে করেছেন। এরপর থেকে তারা একসঙ্গে মাকসুদার বাড়িতেই বসবাস শুরু করেন। মাকসুদা বিভিন্ন সময় মহসিনের কাছ থেকে প্রায় ৩০ হাজার টাকা ঋণ নিয়েছিলেন। সোমবার সকালে মহসিন ওই টাকা ফেরত চাইলে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনার পর বিকেলে মাকসুদা তার দুই মেয়ে রিনা ও রিমু এবং জামাতা শাহ জালাল ও আলিমকে খবর দিয়ে বাড়িতে নিয়ে আসেন। গভীর রাতের কোনো এক সময় মহসিন ঘুমন্ত অবস্থায় তারা পরিকল্পিতভাবে মহসিনকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে ওই বিছানাতেই মশারী টানিয়ে রেখে দেয়, অভিযোগ মহসিনের স্বজনদের।
211
ভোররাতেই মাকসুদা বেগমের মেয়েরা ওই এলাকার ইউপি সদস্যসহ স্থানীয়দের বলে মহসিন মারা গেছে। কিন্তু পরে বিষয়টি বেগতিক দেখে সকালে দুই মেয়ে ও তাদের জামাইরা পালিয়ে যায়। মহসিনের পরিবারের সদস্যরা এ হত্যাকান্ডের ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতারপূবর্ক শাস্তির দাবি জানান। স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন থেকেই মাকসুদা ও মসহিসের অবৈধ মেলামেশা নিয়ে তার দুই মেয়ে, মেয়ের জামাতারা বাধা দিয়ে আসছিলো। এ বিষয়ে রাজাপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (ওসি/তদন্ত) হারুন অর রশিদ জানান, তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তার গলায় এবং হাঁটুতে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

সকালে খবর পেয়ে পুলিশ মাকসুদার ঘর থেকেই মহসিনের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝালকাঠি সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায় এবং মাকসুদাকে আটক করে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। মাকসুদা জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশকে জানায়, রাতে তার ঘরেই মহসিন ঘুমে ছিল, হত্যার বিষয়টি এখনও স্বীকার করছে না, তবে তাকে আরও ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলেও জানান ওসি। এদিকে দুপুরে এ ঘটনায় মাকসুদার দুই মেয়ে ও জামাতাকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ অভিযান চালালে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় যুবলীগ নেতা মহসিনের পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যার ধারায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিয়েছে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts