November 19, 2018

‘নৌকার বাইরে ভোট দিলে হাত-পা ভেঙে দেবেন’

ঢাকাঃ  রাজশাহী-৩ (পবা-মোহনপুর) আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিনের বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গেও অভিযোগ তুলেছেন তার দলেরই ইউনিয়ন সভাপতি আবদুল লতিফ।

তিনি মোহনপুর উপজেলার জাহানাবাদ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে লড়ছেন।

শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে রাজশাহী প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে আওয়ামী লীগ নেতা লতিফ এ অভিযোগর কথা জানান।

তিনি বলেন, গত ২২ মে সংসদ সদস্য আয়েন উদ্দিন নিজ বাসায় জাহানাবাদ ইউনিয়ন যুবলীগের কর্মীদের ডেকে নিয়ে ভুড়িভোজ করিয়ে বলেন-‘যারা নৌকার বাইরে ভোট করবেন তাদের পিটিয়ে হাত-পা ভেঙে দিবেন। পুলিশ আপনাদের সাথে থাকবে।’

এ অবস্থায় তিনি তার ভোটারদের নিরাপত্তা নিয়ে আতঙ্কিত বলেও জানিয়েছেন লতিফ।

এ বিষয়ে এমপি আয়েন উদ্দিন বলেন, আমি নৌকাকে বিজয়ী করতে নেতকর্মীদের নির্দেশ দিয়েছি। কিন্তু হাত-পা ভেঙে দেয়ার হুমকির অভিযোগ ভিত্তিহীন।

একইসঙ্গে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হযরত আলীর বিরুদ্ধেও নির্বাচন আচরণ বিধি ভঙ্গের অভিযোগ তুলেছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল লতিফ।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, প্রতীক বরাদ্দের পর থেকেই আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুস সালাম ও মফিজ কবিরাজের মদদে নির্বাচনের আচরণ বিধি লঙ্ঘনের হিড়িক পড়েছে মোহনপুরের জাহানাবাদ ইউনিয়নে।

তিনি বলেন, সশস্ত্র মিছিল, প্রতিপক্ষের লোকজনকে হুমকি-ধামকি, মারধরসহ নানান অপকর্ম চালাচ্ছেন।

এ স্বতন্ত্র প্রার্থী অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগ প্রার্থী ও এমপির বিরুদ্ধে তিনি রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে একাধিক লিখিত অভিযোগ করেছেন। কিন্তু কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

এ বিষয়ে মোহনপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ মশিউর রহমান বলেন, আবদুল লতিফের নির্বাচনী ক্যাম্প ভাঙচুরের অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত করা হয়েছে। কিন্তু সত্যত মেলেনি।

আর এমপি আয়েন উদ্দিনের বিরুদ্ধে লতিফ কোনো লিখিত অভিযোগ দেননি বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, আগামী ৪ জুন এই ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

উৎসঃ   আমাদের সময়

Related posts