November 16, 2018

নোট বাতিলে দুর্ভোগ চরমেঃ অচল এটিএম, ব্যাঙ্কের বাইরে লাইন

এম বি ফয়েজ, আসামের গোয়াহাটী থেকেঃ নোট বাতিলের পর ব্যাঙ্ক খুলেছে বৃহ্স্পতিবার; আর শুক্রবার থেকে এটিএম, কিন্তু মানুষের দুর্ভোগ এখনও চরমে। বাজার করার টাকাটুকুও না মেলায় ছুটির দিনেও মুখ ভার আম জনতার।

রবিবার বন্ধের দিনেও ব্যাঙ্ক খোলা রাখার ঘোষনা দিয়ে ছিল ব্যাঙ্ক আধিকারীকরা। ব্যাঙ্ক খুলেছে ও যথারীতি; কিন্তু কাজের কাজ কিছুই হয়নি। সামগ্রিক পরিস্থিতির একটুও উন্নতি হয়নি। আসলে বিরাট সংখ্যক ব্যাঙ্ক কর্মীরা প্রধান মন্ত্রী মোদির আর্থিক পরিবর্তন নীতির বিরোধী! তা না হলে এটিএমে টাকা নেই কেন?

রবিবারের চেনা ছবি উধাও। বাজার ছেড়ে ভিড় বাড়ছে এটিএম আর ব্যাঙ্কের সামনে। কিন্তু তাতে সুরাহা হচ্ছে না। বেশির ভাগ এটিএমএ-তেই টাকা নেই। কোথাও আবার বেরোচ্ছে না স্লিপ। ছুটির দিনে ভোগান্তি এড়াতে অনেকে শনিবার রাতেই দাঁড়িয়েছিলেন এটিএমের লাইনে। লাভ হয়নি, লাইনে দাঁড়ানোই সার হয়েছে। গত কয়েকদিনে পরিস্থিতির সেরকম উন্নতি না হওয়ায় কোথাও কোথাও ধৈয্য হারাচ্ছেন গ্রাহকরা।

অন্যদিকে, শনিবারই কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, এখনই স্বাভাবিক হবে না এটিএম পরিষেবা। সময় লাগবে অন্তত দু থেকে তিন সপ্তাহ।
এদিকে টাকা আছে অ্যাকাউন্টে। কিন্তু হাত খালি। তাই ভরছে না বাজারের ব্যাগ। অন্য যে কোনও রবিবারের সকালে গোয়াহাটীর বিভিন্ন বাজারে পা ফেলাই দুষ্কর হয়ে যায়। আজ সেখানে হাতে গোনা কয়েকজন ক্রেতা দেখা গিয়েছে বাজারে। স্বভাবতই চিন্তিত বিক্রেতারা। মাছ থেকে সব্জি বাজার ক্রেতা থেকে বিক্রেতা প্রত্যেককেই পড়তে হয়েছে মারাত্মক সমস্যায়।

এমবিফয়েজ, আসাম ব্যুরো-চীফ,
গ্লোবেল নিউজ২৪ ডটকম

Related posts