December 19, 2018

নোট বাতিল:সার্জিক্যাল স্ট্রাইকই হোক বা কার্পেট বম্বিং, দুর্ভোগ জনতারই

(এম বি ফয়েজ)ঃ কেন্দ্রের নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের পর সাত দিন কেটে গেছে। ব্যাঙ্কগুলোতে পড়ছে দীর্ঘ লাইন, টাকা তুলতে বা বদল করতে গিয়ে চূড়ান্ত হয়রান হতে হচ্ছে আমজনতাকে। এটিএমগুলোও বেশিরভাগ বন্ধ, যে কয়েকটা খুলেছে, তাতে দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়েও অনেক সময় মিলছে না টাকা। এই পরিস্থিতি দেখে শীর্ষ আদালত কেন্দ্রকে বলল, সার্জিক্যাল স্ট্রাইক বা কার্পেট বম্বিং, দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে সাধারণ মানুষকেই।
প্রসঙ্গত, গত সপ্তাহে কেন্দ্রের নোট বাতিলের সিদ্ধান্তের পর আদালতে একগুচ্ছ জনস্বার্থ মামলা দায়ের করে কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্ত ফিরিয়ে নেওয়ার আবেদন জানানো হয়। যদিও আদালত সেই আর্জি নাকচ করে দিয়েছে। তবে আমজনতার এই সমস্যা থেকে মুক্তির জন্যে কেন্দ্রীয় সরকার কী পদক্ষেপ নিচ্ছে, সেব্যাপারে একটি রিপোর্ট জমা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
শীর্ষ আদালতের তরফে আজকের রায়ে বলা হয়, সরকারের এই সিদ্ধান্তে সাধারণ মানুষ যেন সমস্যায় না পড়ে। সরকারের এখনই উচিত্ ব্যাঙ্ক ও এটিএম থেকে টাকা তোলার উর্ধ্বসীমা বাড়ানো। শীর্ষ আদালতের রায়, সাধারণ মানুষ কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্ত মেনে নিলেও, চারিদিকে সেই মধ্যবিত্ত মানুষকেই সবচেয়ে বেশি সমস্যায় পড়তে হচ্ছে।
এদিকে আজই কেন্দ্রীয় অর্থ সচিব শক্তিকান্ত দাস ঘোষণা করেন, এবার থেকে একবার ব্যাঙ্ক থেকে নোট বদলালেই আঙুলে কালির ছাপ দিয়ে দেওয়া হবে। এই একই পদক্ষেপ নির্বাচনে ছাপ্পা ভোট এড়াতে ব্যবহার করা হয়। সাধারণ মানুষের সমস্যা এড়াতে এখন থেকে সাড়ে চার হাজার টাকার নোট বদল করা যাচ্ছে ব্যাঙ্কে। ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তোলার সর্বোচ্চ সীমা বাড়িয়ে ২৪ হাজার করা হয়েছে, এটিএম-এর ক্ষেত্রে প্রতিদিন সেই সীমা হয়েছে আড়াই হাজার।
ব্যুরো-চীপ,
গোয়াহাটী, অসম, ভারত।
supreme-court-pti-580x376

Related posts