September 23, 2018

নেত্রকোনায় টিভি দেখার সংঘর্ষে যুবক নিহত

নেত্রকোনা প্রতিনিধি : নেত্রকোনার মদনে চায়ের দোকানে টিভি দেখার স্থান নির্ধারণের মত তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে বল্লমের আঘাতে এক যুবক নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অপর পাঁচজন। শনিবার রাত সোয়া ১টার দিকে নিহত হয়েছেন, উপজেলার গোবিন্দশ্রী গ্রামের জৈন উদ্দিনের ছেলে কামরুল ইসলাম (৩৩)। গুরুতর আহত অবস্থায় একই গ্রামের মাসুম মিয়া (২৫) নামের আরেক যুবককে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মদন থানার ওসি মো: শোকPicত আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, রাত সাড়ে ১২টার দিকে গ্রামের বাজারের একটি চায়ের দোকানে বসে গ্রামের যুবক ইমরান এবং মাসুম টিভিতে সিডি চালিয়ে সিনেমা দেখছিলেন। এ সময় মধ্যে কে কোথায় বসবে এ নিয়ে তর্ক বাধে। একপর্যায়ে দুই যুবকের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়ান। এ সময় মাসুদ ও তার পক্ষের কামরুল আহত হন। স্থানীয়রা আহত চারজনকে উদ্ধার করে মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ পাঠায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক কামরুল ইসলামকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত মাসুদকে পাঠানো হয় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

 

ওসি আরও জানান, কামরুলের বুকের বামদিকে বল্লমের আঘাত রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।  এলাকার পরিবেশ বর্তমানে শান্ত রয়েছে। কামরুল হত্যায় জড়িতদের ধরতে পুলিশ অভিযানে নেমেছে বলে জানান এ পরিদর্শক।

Related posts