November 17, 2018

নেত্রকোনায় কেন্দুয়া-আটপাড়া আসনে আগামীতে কে পাচ্ছেন আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন ?

নেত্রকোনা প্রতিনিধি : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে কেন্দুয়া-আটপাড়া আওয়ামীলীগের সম্ভাব্য সংসদ সদস্য পদে কে বা কারা প্রার্থী হবেন-এমন নেতাদের নাম দলীয় নেতাকর্মীসহ লোকমুখে চলছে আলোচনা। আলোচনায় উঠে আসছে একটি প্রশ্ন আগামীতে কে পাচ্ছেনে আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন বা টিকেট ? দলীয় মনোয়ন পেতে বর্তমান এমপির পাশাপাশি এ আসনে অন্যান্য দলীয় নেতারাও বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচি, দান-অনুদান, মত বিনিময় সভা, দোয়া ও ইফতার মাহফিলসহ বিভিন্ন প্রচার-প্রচারণায় অংশগ্রহণ করছেন। আওয়ামীলীগ সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের চিত্র জনগনের সামনে তুলে ধরছেন বর্তমান সংসদ সদস্য ইফতিকার উদ্দিন তালুকদার পিন্টু। বর্তমান সংসদ সদস্য ছাড়াও সম্ভাব্য অনেকের নামও আলোচনায় আসছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে। তাদের মধ্যে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, সাবেক এমপি মঞ্জুর কাদের কোরাইশী, বিশিষ্ট শিল্পপতি সামছুল কবীর খান, কেন্দ্রীয় নেতা এডভোকেট আব্দুল মতিন, আটপাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব খায়রুল ইসলাম, কেন্দুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম জাহাঙ্গীর চৌধূরীর নাম আলোচনায় রয়েছে । বর্তমান সংসদ সদস্যের মনোনয়ন বহাল থাকছে নাকি অন্য কোন নতুন মুখের সন্ধান পাবেন-এ আসনের জনগণ তা নিয়ে আলোচনা চলছে কেন্দুয়া-আটপাড়ার সবখানেই।

মনোনয়নের বিষয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক- ২০০৬ সালে তৃণমূলের নির্বাচনে বিজয়ী অসীম কুমার উকিল জানান, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নেত্রকোনা-৩ আসনে তিনিও দলীয় মনোনয়ন চাবেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা তাঁকে মনোনয়ন দিলে কেন্দুয়া-আটপাড়ায় নৌকা প্রতীকে বিজয়ী হয়ে এলাকার উন্নয়নে কাজ করে যাবেন। এছাড়াও তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি আমাকে মনোনয়ন না দেয়, তবু আমি অতীতের ন্যায় নৌকা প্রতীকে যে মনোনয়ন পাবে তার বিজয়ের লক্ষ্যে সুন্দর বাংলাদেশ নির্মাণে আগামীর জন্য কাজ করে যাবো। তবে দলীয় অনেক নেতাকর্মী বলছেন অসীম কুমার উকিল দলীয় গ্রীণ সিগন্যাল পেয়েছেন বলেই এলাকায় জনসম্পৃক্ততা বাড়াতে শুরু করেছেন। এমন কি প্রায় প্রতি সপ্তাহেই কেন্দুয়া-আটপাড়ায় বিভিন্ন কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করছেন।

Pic (1)

এ ব্যাপারে কেন্দ্রীয় যুব মহিলালীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অপু উকিল জানান, আমি কেন্দুয়া-আটপাড়ায় দলীয় প্রতীক নৌকার জন্য কাজ করছি, কাজ করে যাচ্ছি জনপ্রিয় নেতা অসীম কুমার উকিলের জন্য, কাজ করছি জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে তৃণমূল পর্যায়ে শক্তিশালী করার জন্য। বর্তমান সংসদ সদস্য ইফতিকার উদ্দিন তালুকদার পিন্টু সাথে কথা বললে তিনি জানান, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়নের ক্ষেত্রে আমি শতভাগ আশাবাদী । আমার বিশ্বাস, নেত্রী আমার ক্লিন ইমেজ ও সততার জন্য আমাকেই মনোনয়ন দিবেন। আমি কেন্দুয়া-আটাপড়ার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি, ভবিষৎ-এ মনোনয়ন পেয়ে বিজয়ী হয়েও কাজ করে যাবো । সাবেক এমপি মঞ্জুর কাদের কোরাইশীর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আমি দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী তবে কোন কারণে আমি মনোনয়ন না পেলে যে মনোনয়ন পাবে তার জন্য কাজ করবো।

আটপাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব খায়রুল ইসলাম বলেন, যদি জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন দেন তাহলে আমি জনগণের কল্যাণে এবং তৃনমূলে দলকে শক্তিশালী করতে কাজ করে যাব। বিশিষ্ট শিল্পপতি আওয়ামীলীগ নেতা সামছুল কবীর খান জানান, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নের বিষয়ে আমি শতভাগ আশাবাদী মনোনয়ন আমিই পাব। তথাপি দলীয় যেকোন সিদ্ধান্তকে আমি স্বাগত জানাব । অন্য কেউ মনোনয়ন পেলে আমি দলের জন্যই কাজ করবো। অপরদিকে বর্তমান সময়ে এলাকায় দলীয় কর্মকান্ডসহ জনসম্পৃক্তায় এডভোকেট আব্দুল মতিনকে খুব একটা দেখা যাচ্ছে না বলে মন্তব্য করেছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের কয়েকজন সদস্য। এ বিষয়ে ও মনোনয়নের ব্যাপারে জানতে চাইলে এডভোকেট আব্দুল মতিন জানান, রাজনৈতিক বিবেচনায় মনোনয়ন দিলে আমিই প্রাপ্য এমনটাই প্রত্যাশা করি। আমার জনসম্পৃক্ততা রাজনৈতিক ভাবে কম, তবে এলাকার জনগনের সাথে ব্যক্তিগত ভাবে বেশী। তিনিও আরও বলেন, দুনিয়াদারীর কোন লোভ প্রাপ্তি আমাকে আকৃষ্ট করে না। দলীয় মনোনয়ন পেলেও জনগনের সেবা করে যাবো, না পেলেও করে যাবো। আওয়ামীলীগের দলীয় প্রতীক নৌকা মার্কায় ভোট দেব,নৌকার জন্য কাজ করবো।

কেন্দুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ নুরুল আলম জাহাঙ্গীর চৌধূরী জানান, এ এলাকায় একজন উন্নয়নের এমপি প্রয়োজন তাই কেন্দুয়া-আটপাড়ার উন্নয়নের জন্য আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমিও মনোনয়ন চাইব। এছাড়াও কেন্দুয়া পৌর আওয়ামীলীগের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী জানান, কেন্দুয়া-আটপাড়া আসনের জন্য অধ্যাপক অপু উকিলও যথেষ্ট যোগ্যতা রাখে । আমরা আশা করি জননেত্রী তাঁকে মনোনয়ন দিলে তিনি এ আসনে বিপুল ভোটে বিজয়ী হবেন ।

২০১৪ সালে ৫ জানুয়ারী এ আসন থেকে বহু নাটকীয়তা শেষে আওয়ামীলীগের দলীয় টিকেট পেয়েছিলেন বর্তমান সংসদ সদস্য ইফতিকার উদ্দিন তালুকদার পিন্টু। তবে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচনে কেন্দ্রীয় সূত্রে জানা যায়, নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন প্রত্যাশায় যারাই আসুক না কেন। এবার সরকার দলীয় আসন হতে নির্বাচনে যাতে ভরাডুবি না হয়, সেভাবে বিতর্কহীন মাঠে জনপ্রিয় ও ক্লিন ইমেজের সক্রিয় কোন নেতাকে মনোনয়ন দেবেন।

Related posts