December 11, 2018

কঠোর গোপনীয়তায় আদালতে নূর হোসেন

কঠোর গোপনীয়তায় আদালতে নূর হোসেন

স্টাফ রিপোর্টারঃ   সোমবার সকালে নারায়ণগঞ্জ জুডিশিয়াল আদালতে সাত খুন মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেনকে কঠোর গোপনীয়তায় আনা হয়।  নারায়ণগঞ্জের আদমজী ইপিজেডের একটি প্যাকেজিং কারখানায় চাঁদাবাজির মামলার কয়েক মিনিটের শুনানি শেষে আবারও কঠোর প্রহরায় তাকে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে নেয়া হয়।

নারায়ণগঞ্জ কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক হাবিবুর রহমান জানান, সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি চাঁদাবাজি মামলায় নূর হোসেনকে কঠোর পুলিশ প্রহরায় কাশিমপুর কারাগার থেকে নারায়ণগঞ্জ আদালতে আনা হয়। জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাইদুজ্জামান শরীফের আদালতে শুনানি শেষে তাকে আবারও কাশিমপুর কারাগারে পাঠানো হয়েছে। নূর হোসেন চাঁদাবাজি মামলার চার্জশিটভূক্ত আসামি।

গত ১২ নভেম্বর নূর হোসেনকে ভারত থেকে দেশে ফিরিয়ে আনার পর ১৩ নভেম্বর সাত খুনের দুটি মামলাসহ ১৩টি মামলায় পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার দেখায়। ওই ১১টি মামলাতেই নূর হোসেনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করা হয়। এর মধ্যে বিএনপির সাবেক এমপি গিয়াসউদ্দিনের অনুগামী হিসেবে পরিচিত আকরাম হোসেন নামে আদমজী ইপিজেডের একটি প্যাকেজিং কারখানার মালিক ২০১৪ সালের ২৭ মে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় চাঁদাবাজির মামলাটি দায়ের করেন। এতে নূর হোসেনকে প্রধান আসামি করে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করা হয়।

মামলার বিরণে বলা হয়, ২০১৩ সালের ২৫ মে আকরাম হোসেনের কাছে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদাবাজি দাবি করেন নূর হোসেন ও তার সহযোগিরা। ভয়ে ওই সময় তিনি মামলা করেননি। পরে সাত খুনের ঘটনায় নূর হোসেন ভারত পালিয়ে গেলে তিনি মামলা করেন। পরবর্তীতে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নূর হোসেনসহ আট জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts