November 13, 2018

নীরবতা পালন না করায় সৌদি ফুটবল দলের সমালোচনা

aস্পোর্টস ডেস্ক::সৌদি ফুটবল টিম যে লন্ডনে সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করেনি, সেজন্যে সৌদি ফুটবল কর্মকর্তারা ক্ষমা চেয়েছেন।

এডেলাইড ওভালে গত বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে এক কোয়ালিফাইয়িং ম্যাচের সময় এই ঘটনা ঘটেছিল। খেলার শুরুতে অস্ট্রেলিয়ার খেলোয়াড়রা যখন এক মিনিট নীরবতা পালন করছিল তখন সৌদি খেলোয়াড়রা মাঠে তাদের অবস্থান নিয়ে শরীরচর্চা করছিল।

ফুটবল কর্মকর্তারা জানিয়েছিলেন, সৌদি সংস্কৃতিতে এরকম নীরবতা পালনের কোন রীতি নেই এবং তারা যে এতে অংশ নেবে না তা আগেই জানানো হয়েছিল। কিন্তু একজন অস্ট্রেলিয়ান এমপি এক ঘটনার নিন্দা করে বলেছেন, এটি খুবই ‘অসন্মানজনক’।

ফুটবলের বিশ্ব সংস্থা ফিফা অবশ্য বলেছে, এ ঘটনার জন্য সৌদি ফুটবল টিমকে কোন নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে হবে না। ফিফা বলেছে, তারা পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখেছে এবং এখানে কোন শৃঙ্খলামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের ভিত্তি আছে বলে মনে করে না।

গত শনিবার লন্ডন ব্রিজে এক সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয় আট জন। নিহতদের মধ্যে ছিলেন দুজন অস্ট্রেলিয়ান নাগরিক।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে কোয়ালিফাইয়িং ম্যাচের আগে যে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হবে সেটা আগেই ঠিক হয়েছিল। কিন্তু সৌদিরা আগেই জানিয়ে দিয়েছিল যে তারা যেহেতু এই রীতিতে অভ্যস্ত নয়, তাই ঐ সময়টায় তারা মাঠের এক পাশে সরে যাবে।

এক মিনিট নীরবতা পালনের সময় অস্ট্রেলিয়ান ফুটবলাররা হাতে হাত বেঁধে দাঁড়িয়ে নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। অন্যদিকে সৌদি খেলোয়াড়রা মাঠি গিয়ে তাদের অবস্থান নেন। একমাত্র সাত নম্বর জার্সিধারী সালমান আল ফারাজকে স্থির হয়ে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। সৌদি আরবের ফুটবল ফেডারেশন এ ঘটনার জন্য শুক্রবার ক্ষমা চায়।

এক বিবৃতিতে তারা বলেছে, সন্ত্রাসবাদের শিকার হয়ে যারা নিহত হন, তাদের প্রতি অশ্রদ্ধা জানানোর কোন উদ্দেশ্য তাদের ছিল না। সৌদি ফুটবল ফেডারেশনও সব ধরণের সন্ত্রাসবাদের নিন্দা করে।

তবে সৌদি ফুটবলাররা আগে খেলার মাঠে এক মিনিট নীরবতা পালন করেছেন এমন নজির আছে। আল আহলি সৌদি ফুটবল ক্লাব যখন ২০১৬ সালের ১৩ই ডিসেম্বর কাতারের দোহায় বার্সেলোনার বিরুদ্ধে খেলেছিল, তখন বিমান দুর্ঘটনায় নিহত ব্রাজিলিয়ান ফুটবল দল শাপেকোয়েন্সের খেলোয়াড়দের স্মরণে তারা এক মিনিট নীরবতা পালন করে। বিবিসি

Related posts