September 24, 2018

নির্যাতিত নারী ও শিশুদের আইনী সহায়তা দিনঃ ভূমিমন্ত্রী

আয়েশ আক্তার রুবি, বিশেষ সংবাদদাতা: ভাষাসৈনিক, মুক্তিযোদ্ধা, ভূমি মন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ সমাজে নিগৃহীত, অবহেলিত বা নির্যাতিত নারী ও শিশুদের খুঁজে বের করে আইনী সহায়তা প্রদানের জন্য সংশিষ্টদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

শুক্রবার ঈশ্বরদীর বাংলাদেশ সুগারক্রপ গবেষণা ইনস্টিটিউট অডিটোরিয়ামে জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থা আয়োজিত সরকারি আইন সহায়তা কার্যক্রম সম্পর্কিত সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমিমন্ত্রী এ আহ্বান জানান।

ভূমি মন্ত্রী শরীফ বলেন, অসহায়, দুঃস্থ, অবহেলিত মানুষের জন্য আইনী সহায়তা প্রদান নিশ্চিত করার জন্য ২০০০ সালে গঠন করা হয় জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থা। মন্ত্রী বলেন, গ্রামেগঞ্জে ভিজিএফ’র চাল না পেলে যাদের বাড়িতে রান্না হয় না, যারা নিজের পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে নিগৃহীত বা অবহেলিত তাদের জন্যই এই লিগ্যাল এইড। লিগ্যাল এইড কাজকে আরও উৎসাহিত করার জন্য আইনগত সহায়তা কেন্দ্র থেকে সনদ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য মন্ত্রী সংশিষ্টদের পরামর্শ দেন।

মন্ত্রী বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও জাতীয় চারনেতাকে হত্যার পর এদেশের স্বাধীনতা বিরোধী স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠী বিভিন্ন সময়ে ষড়যন্ত্র করে ক্ষমতায় এসে মানুষের গড়া আইন, সমাজ ব্যবস্থা ও মানুষের মৌলিক অধিকারগুলো হরণ করে এদেশের সার্বভৌম ও বাংলাদেশের নাম নিশানা নিশ্চিহ্ন করতে চেয়েছিল। কিন্তু জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা অত্যন্ত বলিষ্ঠতার সাথে এদেশের জনগণকে সুসংগঠিত করে সেই ষড়যন্ত্রকারীদের সকল অপচেষ্টা রুখে দিয়েছেন। মন্ত্রী বলেন, ১৯৯৬ সালে বাংলাদেশের নতুন অগ্রযাত্রা শুরু হয়। একটি দেশের উন্নতি হতে হলে সেইদেশের প্রত্যেকের জন্য মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করা দরকার। তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব এদেশের প্রতিটি মানুষের জন্য আলাহ প্রদত্ত মৌলিক অধিকার- অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা, চিকিৎসা নিশ্চিত করে সোনার বাংলা গড়তে চেয়েছিলেন। তিনি বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা বাস্তবায়নে একটি আধুনিক ও উন্নত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে সরকার কাজ করে যাচ্ছে। তিনি সকলকে সরকারের উন্নয়নের এ মহাকর্মযজ্ঞে সামিল হওয়ার আহ্বান জানান।

পাবনা জেলার সিনিয়র জেলা দায়রা জজ আবদুল কুদ্দুস মিয়ার সভাপতিত্বে এসময় অন্যান্যের মধ্যে নারী ও শিশু আদালতের জেলা জজ গাজী রহমান, অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রেজাউল করিম, ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাকিল মাহমুদ, লিগ্যাল এইড অফিসার সিনিয়র সহকারী জজ নাহিদুর রহমান নাহিদ, ঈশ্বরদী উপজেলা চেয়ারম্যান মখলেছুর রহমান মিন্টু, ঈশ্বরদী পৌর মেয়র আবুল কালাম আজাদ মিন্টু, উপজেলা প্যানেল চেয়ারম্যান মাহজেবিনি শিরীন পিয়া, ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনিসুন্নবী বিশ্বাস ও ঈশ্বরদীর সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আয়েশ আক্তার রুবি,
বিশেষ সংবাদদাতা , ঈশ্বরদী।

Related posts