September 25, 2018

নির্মাণের ক্ষেত্রে ভাল গল্পকেই প্রাধান্য দেন রাহাত কবীর

img_0793

বিনোদন ডেস্কঃ ছোট পর্দার নির্মাতা রাহাত কবীর। এসময় অন্যান্য ছোট পর্দার নির্মাতাদের তুলনায় কিছুটা আলাদা তিনি। নিজেকে নয়, নিজের কাজকেই ফোকাস করতে বেশী ভালবাসেন এই পরিচালক। ক্যারিয়ারের দীর্ঘ সময় কাটিয়েছেন মঞ্চে বা থিয়েটারে।

টিভি নাটকে পরিচালক হিসেবে প্রথম আবির্ভাব ঘটে ২০১১ সালে। এরপর কেটেছে বেশ কিছুবছর। নিউজরুমের সাম্প্রতিক এক সাক্ষাতকারে শুরু এবং আসন্ন কিছু কাজ নিয়ে মুখোমুখি হয়েছিলেন নাট্যপরিচালক রাহাত কবীর।

নিউজরুমঃ কেমন আছেন?

উত্তরঃ আলহামদুলিল্লাহ, ভালো।

নিউজরুমঃ এখন কি কাজ নিয়ে ব্যস্ত?

উত্তরঃ (হেসে) আমার খুব বেশী কাজ করা হয় না। চেষ্টা করি বেছে ভাল কিছু কাজ করতে। তারপরও তো বসে থাকার জো নেই। বিজয় দিবস, ২১শে ফেব্রুয়ারী আর ২৬ শে মার্চ নিয়ে কিছু কাজ করার পরিকল্পনা আছে। তাই নিয়ে এগুচ্ছি।

নিউজরুমঃ বাংলা নাটকের ক্ষেত্রে কোন ধরনের কাজ করতে আপনি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন?

উত্তরঃ সব ধরনের কাজই তো করতে হয়। তবে আমাদের বাংলা সাহিত্যে অনেক ভাল গল্প রয়েছে। উপন্যাস ভিত্তিক কিংবা ইতিহাস নির্ভর কাজগুলোই আমাকে বেশি টানে।

_o6a0103-2

নিউজরুমঃ আপনার পথচলার শুরুটা কিভাবে হয়?

উত্তরঃ শুরুটা থিয়েটারে ১৯৯৭ সালে চট্টগ্রামে শিকর নাট্যসম্প্রদায় থেকে। এর পর সমীকরণ থিয়েটারে কাজ করা, তারপর গঠন করি নাট্যাধার ২০০৬ সালে। নাট্যাধার থেকেই মঞ্চ নাটকে নির্দেশনা শুরু। পাশাপাশি অভিনয় এর কর্মশালা করিয়েছি এ্যাটেলিয়ার নামক একটি সংগঠন থেকে দুবছর।

নিউজরুমঃ মঞ্চ থেকে টিভি মিডিয়া, এই মাধ্যমে আসার পেছনের গল্পটা বলুন।

উত্তরঃ মঞ্চ হচ্ছে প্রাণের জায়গা। নিজেকে তৈরি করার জন্য মঞ্চের বিকল্প নেই। কথায় আছে জুতো সেলাই থেকে চণ্ডী পাঠ সবই করতে হয় এখানে। অভিনয়, সেট-কস্টিউম-লাইট-ডিজাইন, প্রপ্স ম্যানেজমেন্ট, মেকাপ থেকে শুরু করে নির্দেশনা/পরিচালনা এইসব কিছুই মঞ্চে শিখতে হয়েছে। বিষয়টি লংপ্রসেস। মঞ্চে দীর্ঘদিন সময় দিয়েছি নিজেকে তৈরি করার জন্য। টেলিভিশন মিডিয়া হচ্ছে নিজেকে বিকশিত করার জায়গা। শুরুটা এভাবেই হয় ২০১১সালে।

_mg_7599

নিউজরুমঃ টেলিভিশন নাটককে আপনি কি ভাবে দেখতে চান?

উত্তরঃ নাটকের মূল রসদ হচ্ছে ভালো গল্প। আর ঐ গল্পে পরিচালকের কাজ করার গভীরতা থাকলে দুটো মিলে একটা ভালো আউটপুট অবশ্যই তৈরি হবে। ফলে দর্শক স্বাভাবিকভাবেই টিভিমুখী হবে। আমি সবসময় ভাল গল্পকে প্রাধান্য দেই বলেই প্রত্যেকটা কাজের আগে একটু সময় নেই। তাই ন্যাচারালি গটবাঁধা কাজের চাইতে ভালো গল্পের কাজ দেখতে চাই। কাজ করার ক্ষেত্রে সংকট থাকবেই। এই এক্সকিউজ না দেখিয়ে সংকটগুলো ওভারকাম করে কাজ করে যেতে হবে।

নিউজরুমঃ চলচ্চিত্র নির্মাণ নিয়ে কিছু ভাবছেন?

উত্তরঃ (হেসে) এই মুহূর্তে ভাবনাটা রিভিল করতে চাইনা। একটি গল্প নিয়ে কাজ চলছে। সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে ইনশাল্লাহ খুব শীঘ্রই শুরু করতে পারবো।

নিউজরুমঃ আপনার সাথে কথা বলে অনেক ভালো লাগলো। ধন্যবাদ আপনার মূল্যবান ও সুন্দর মতামতের জন্য।

উত্তরঃ আপনাকেও ধন্যবাদ। ভালো থাকবেন।

Related posts