September 20, 2018

নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিবের ইউনিয়নেও অনিয়মের অভিযোগ

শামসুজ্জোহা পলাশ,
চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ
খোদ প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিব উদ্দীন আহমেদের গ্রামের বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলার জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ভোট কারচুপি ও অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মির্জা সাকিবুর রহমান লিটন ভোট কারচুপির অভিযোগ করেছেন। ওই ইউনিয়নের ২ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডে পুনরায় ভোট গণনা অথবা পুনর্র্নিবাচনের দাবি জানান তিনি। ভোট কারচুপিসহ নানা অনিয়মের জন্য তিনি চুয়াডাঙ্গা-২ আসনে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য আলী আজগর টগরকে দায়ী করেন।

রবিবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় আন্দুলবাড়ীয়া বাজারে তার নির্বাচনী কার্যালয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সাকিবুর রহমান লিটন বলেন, দলীয় নৌকা প্রতীককে উপেক্ষা করে সংসদ সদস্য আলী আজগার টগর তার শ্যালক ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তারের আনারস প্রতীকের পক্ষে নির্বাচনের কার্যক্রম পরিচালনা করেন। আওয়ামী লীগ কর্মী, সমর্থকদের ওপর পুলিশ ও সন্ত্রাসী দিয়ে নির্যাতন চালিয়েছেন। ২ হাজার ভোটারদের নৌকা প্রতীকে ভোট না দিয়ে আনারস প্রতীকে ভোট দেওয়ার জন্য সংসদ সদস্য হুমকি দেন বলেও অভিযোগ করেন লিটন।

প্রিসাইডিং, সহকারী প্রিসাইডিং ও পোলিং অফিসারদের সংসদ সদস্য নিজের পছন্দমতো লোক দিয়ে সাজিয়েছেন দাবি করে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী বলেন, ভোটের দিন বেলা ১২টার দিকে পোলিং এজেন্টদের জোরপূর্বক ফলাফল ফরমে সই করিয়ে নিয়েছিল তারা। যে সকল পোলিং এজেন্ট সই করতে চাচ্ছিল না তাদেরকে পুলিশ ডেকে নির্যাতন করিয়ে ফলাফল ফরমে জোর করে সই করিয়ে নেওয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, ভোট শেষে সংসদ সদস্যের নিয়োজিত প্রিসাইডিং ও সহকারী প্রিসাইডিং অফিসাররা ভোট গণনা করতে গিয়েই কারচুপি শুরু করে। সবচেয়ে বেশি কারচুপি হয় ২ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডে। চাতুরতার আশ্রয় নিয়ে ভোট গণনার সময় বিকেল ৫টা ৩০ মিনিটে বিদ্যুৎ বন্ধ করে দেওয়া হয়। বিদ্যুৎ আসার পর গণনা ভুল হয়েছে বলে আবারও গণনা করা হয়।

এ ছাড়া ২ নম্বর ওয়ার্ডে ভোট গণনার সময় আনারস প্রতীকের প্রার্থী শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তার কেন্দ্রে ঢুকে পড়েন। এর প্রতিবাদ করায় তিনি বিকল্প দরজা দিয়ে বেরিয়ে যায়। এরপর ওই ওয়ার্ডে প্রিসাইডিং অফিসারের অনুপস্থিতিতে আনারস প্রতীককে জয়ী ঘোষণা করা হয়।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি ৩০ মে ২০১৬

Related posts