September 20, 2018

নিজের ব্যর্থতা স্বীকার করলেন মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের

194464_1

ঢাকা : যানজট-দুর্ঘটনা রোধ করতে না পারায় অবশেষে ব্যর্থতা স্বীকার করলেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। বৃহস্পতিবার নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির দু’যুগ পূর্তি উপলক্ষ্যে আয়োজিত ৯ দিনব্যাপী উৎসবের উদ্বোধনী দিনে প্রধান অথিতির বক্তব্যে এ ব্যর্থতার জন্য পথচারীদের অসচেতনতা এবং চালকদের বেপরোয়া মানোভাবকেই দায়ী করেন মন্ত্রী।

সারাদেশের উন্নয়নের তথ্য তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের সামগ্রিক উন্নয়নের অগ্রগতি আশানুরূপ হলেও শুধু পারছি না যানজট ও দুর্ঘটনা রোধ করতে। দুর্ঘটনা রোধ করা খুব কঠিন বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। সঙ্গে আছে অসহনীয় যানজট।’

তবে যানজট নিরসনে চেষ্টা চলছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘যানজট ও দুর্ঘটনা রোধে রাস্তার ইঞ্জিনিয়ারিং সমস্যার সামাধান হচ্ছে। পুলিশি নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থায় উন্নতি হচ্ছে। সচেতনতা কিন্তু আপনাদের (সাধারণ মানুষ) বাড়াতে হবে।’
পথচারীদের অসচেতনতার বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘মধুর মধুর আলাপনে আপনি এপার-ওপার হচ্ছেন আর বেপরোয়া চালক এসে আপনাকে পিষ্ট করে চলে যাচ্ছে।’ এসময় রাস্তা পারাপারে দুর্ঘটনা এড়াতে সচেতনতার পাশাপাশি ট্রাফিক আইন মেনে চলার অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি।

দুর্ঘটনার জন্য পথচারী এবং উভয় দোষী উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এখানে শুধু চালকদের দোষ না, আমাদেরও দোষ আছে।’ আবার মন্ত্রী চালকদের বেপরোয়ার গতিবিধি নিয়ে উপহাস করে বলেন, ‘গাড়ির সামনে লেখা আছে ‘মায়ের দোয়া’। পিছনে লেখা আছে ‘আল্লার নামে চলিলাম’। অথচ মায়ের দোয়া নিয়ে আল্লার নামে চলতে চলতে খাদের মধ্যে, হাওরের মধ্যে অথবা ফুটপাতের মধ্য পড়ে আছে।’ এক্ষেত্রে দুর্ঘটনার জন্য চালকদেরও কোনোভাবে ছাড় দেয়া হবে না বলে উল্লেখ করেন মন্ত্রী।

রাজধানীর সিটিং সার্ভিস নিয়ে হতাশা প্রকাশ করে মন্ত্রী বলেন, ‘প্রত্যেকটি গাড়ির গায়ে লেখা আছে সিটিং সার্ভিস। আসলে এগুলো চিটিং সার্ভিস। গাড়ি ভর্তি লোক ছাদেও আছে। নাম সিটিং সার্ভিস! এগুলোর মধ্য দিয়েই যাচ্ছি। সবই প্রতিকূল পরিস্থিতি। তারপরও ফুটপাত, রাস্তা দখলমুক্ত করার আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।’

নর্থ সাউথ ইউনিভার্সটির উপাচার্য অধ্যাপক আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিখি হিসেবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নাসরুল হামিদ বিপু। এছাড়াও অতিখি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়টির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান এমএ কাশেমসহ অনেকে।

এদিকে নর্থ সাউথ ইউনিভার্সটির ৯ দিনব্যাপী ‘গৌরবের দুই যুগ পূর্তি’ উদযাপন উপলক্ষে সকাল ৯টায় বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়। যা বিশ্ববিদ্যালয়ের বসুন্ধরা ক্যাম্পাস থেকে গুলশান নতুন বাজার হয়ে ক্যাম্পাসে এসে শেষ হয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

Related posts