September 25, 2018

‘নিজামি-মুজাহিদরাই গণহত্যা করেছিল, পাকিস্তানের কর্মকান্ডই প্রমান ’

নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।

রমজানুল মোরশেদ, ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ   শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের ব্যাপারে পাকিস্তান সরকারের কর্মকান্ডই প্রমান করে নিজামি-মুজাহিদরা প্রকৃতই যুদ্ধাপরাধী। তাদের শাস্তির রায় কার্যকর করা সঠিক হয়েছে। আমরা এ দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে চাই, কিন্তু ৭১’ এ যারা গণহত্যা চালিয়েছিল, ৭৫ এ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে স্ব-পরিবারে এবং জাতীয় চার নেতাকে নির্মম ভাবে হত্যা করেছিল তারা তা চায় না। মন্ত্রী গতকাল শনিবার দুপুরে ঝালকাঠি পৌরসভা প্রাঙ্গনে তার সম্মানে আয়োজিত নাগরিক সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

নবনির্বাচিত মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মো মিজানুল হক চৌধুরী, পুলিশ সুপার সুভাষ চন্দ্র সাহা, জেলা আওয়ামী লীগ সাধারন সম্পাদক অ্যাড. খান সাইফুল্লাহ পনির প্রমুখ । অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সম্পাদক ও ঝালকাঠি সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সুলতান হোসেন খান, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপ-কমিটির সহ-সম্পাদক এসএম রুহুল আমীন রেজভী প্রমুখ। মন্ত্রী  আরো বলেন, ১৮৭৫ সালে ঝালকাঠি পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হবার পরে ১৯৯৬ সালে আওয়ামীলীগ সরকারের ক্ষমতামলে এটি ১ম শ্রেণিতে উন্নীত করা হয়। ২০১১ সালের পৌর নির্বাচনের পূর্বে জাইকা প্রতিনিধি দল ঝালকাঠিতে এসে পরিদর্শন করেন। পৌরসভার উন্নয়নে তারা আর্থিক বরাদ্দ দেন।

২০১১ সালের নির্বাচনের পর নির্বাচিত মেয়র জাইকার দেয়া সে বরাদ্দ সঠিক ভাবে কাজে না লাগানোয় মাত্র তিন মাসের মধ্যেই রাস্তার আস্তর উঠে গেছে। এখন আবার নতুন করে বরাদ্দ আসছে। সেই বরাদ্দের কাজে জনপ্রতিনিধিরা নিজেদের দিকে না তাকিয়ে পৌরবাসির বৃহত্তর জনস্বার্থে কাজে লাগাতে হবে। ঝালকাঠি পৌরসভার নবনির্বাচিত পৌর পরিষদ এ নাগরিক সংবর্ধনার আয়োজন করে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/১৪ মে ২০১৬

Related posts