November 15, 2018

‘নাগরিকত্ব আইন ২০১৬’র সংশোধনের দাবী<<বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশ হাইকমিশনে স্মারকলিপি

ডেস্ক রিপোর্টঃ  সম্প্রতি মন্ত্রীসভায় নীতিগতভাবে অনুমোদন পেয়েছে প্রস্তাবিত নাগরিকত্ব আইন  ২০১৬ । যা পাশ হলে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে নাগরিকত্ব গ্রহণকারী বাংলাদেশীরা বিড়ম্বনা শিকার হবে বললেন সংবাদ সম্মলনে। সোমবার ভয়েস ফর বাংলাদেশের উদ্যোগে পূর্ব লন্ডনের মাইক্রোবিজনেস সেন্টারে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির আহবায়ক আতাউল্যাহ ফারুকের পরিচালানয় সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সাবেক অধ্যাপক ড.হাসনাত হোসাইন এমবিই লিখিত বক্তব্যে এই কথা জানান।  লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, বলেন বাংলাদেশে প্রথমবারের মত একটি বিধিবদ্ধ নাগরিকত্ব আইন করার উদ্যোগকে স্বাগত জানানো গেলেও আইনটির দুর্বল খসড়া এবং ভুলবশত: বা অসেচতনমূলক ভাবে সংযোজিত কিছু ধারা সত্যিকার অর্থেই আইনে রুপান্তরিত হলে প্রবাসী যারা দ্বৈত নাগরিকত্ব গ্রহণ করেছেন তারা ভীষনভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হবেন।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক কে এম আবু তাহের চৌধুরী, আইনজীবী ব্যারিস্টার নাজির আহমদ, জালালাবাদ এসোসিয়েশনের সভাপতি আশিকুর রহমান আশিক, বিএসইউ এর সাধারণ সম্পাদক এস এইচ সোহাগ, ভয়েস ফর বাংলাদেশ ইউকের শাখার আহবায়ক ফয়সাল জামিল, বাংলাদেশী পর্তুগাল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর, ফরহামদ হোসেন, আলাউদ্দিন রাসেল, ফয়সাল আহমদ, কানিস ফাতেমা, পারভিন ববি, মাহমুদুল হাসান, লুৎফুর রহমান, আবদুল্লাহ আল নোমান, সাদিয়া টুম্পা, আতিকুর রহমান, ওবায়েদ পাভেল ।

লিখিত বক্তব্যে আরো জানান, আগামী ১৫ই জুন বিশ্বের ৩০ দেশের প্রবাসি বাংলাদেশীরা বাংলাদেশ হাইকমিশনের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি  প্রদান করে আইনটি সংশোধন করার আহবান জানাবেন।

যদি সত্যিকারভাবেই প্রস্তাবিত আইনটি হুবহু পাশ হয়ে যায় তাহলে প্রবাসীরা তাদের মাতৃভূমির সাথে যে সম্পর্ক রক্ষা করে আসছেন তা বিঘ্নিত হবার সম্ভাবনা রয়েছে।

আইনটির খসড়া প্রস্তাবে বলা হয়েছে যারা প্রবাসী নাগরিকের মর্যাদা পাবেন তারা বেশ কিছু অধিকার হারাবেন, যেমন বাংলাদেশে বিনিয়োগ এবং ব্যবসা বানিজ্য পরিচালনার ক্ষেত্রে বাধার সম্মুখীন হবে, নতুন প্রজন্মকে উত্তরাধিকার সূত্রে বাংলাদেশী সম্পত্তি হস্তান্তর করতে জটিলতায় পড়তে হবে, বংশ সূত্রে নাগরিকতা পাওয়ার ক্ষেত্রে শর্ত সাপেক্ষে পিতা মাতাকে এই আইন কার্যকর হওয়ার পূর্বে বাংলাদেশের নাগরিক হতে হবে । জাতীয় সংসদ নির্বাচন, রাষ্ট্রপতি নির্বাচন এবং স্থানীয় সরকারসহ কোন পদে নির্বাচন করতে পারবে না। উচ্চ আদালতের বিচারকসহ প্রজাতন্ত্রের কোন কর্মে নিয়োগ লাভ করতে পারবে না এবং  কোন রাজনৈতিক সংগঠনের সদস্য হতে পারবেননা।

আইনটি সংবিধানের কিছু কিছু অনুচ্ছেদের সাথেও সাংঘর্ষিক। সংবিধান যেখানে সকল নাগরিকের জন্য সমান অধিকারের সুযোগ দিয়েছে সেখানে এই আইন পাশ হলে দ্বৈত নাগরিকত্ব অর্জনকারীরা বৈষম্যের শিকার হবে।

প্রবাসীদের প্রস্তাবিত নাগরিকত্ব আইন ২০১৬ বিষয়ে সচেতন করার পাশাপাশি সরকারেক অনুরোধ করছি এই আইনটি সংশোধন করে প্রবাসী বাংলাদেশীদের নাগরিক অধিকারগুলো যেন অক্ষুন্ন রাখা হয়।

সভাটি আয়োজনে সহযোগীতা করেন বাংলাদেশ স্টুডেন্ট ইউনিয়ন ইউকে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি ৩১ মে ২০১৬

Related posts