November 16, 2018

নতুন কমিটি নিয়ে বিএনপির নতুনভাবে যাত্রা শুরু

ঢাকাঃ নতুন কমিটি নিয়ে নতুনভাবে যাত্রা শুরু করেছে বিএনপি। গেল সোমবার বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে নতুন কমিটির নেতাদের শহীদ জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধার জানানোর মধ্য দিয়ে এই নতুন যাত্রা শুরু হয়েছে বলে নেতারা দাবি করছেন।

বিএনপির এই নবযাত্রার সূচনাতেই দল পুনর্গঠনে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। জানা গেছে, নতুন কেন্দ্রীয় কমিটি গঠনের পর দলের অগোছাল তৃণমূল পুনর্গঠনের কাজ আবার শুরু করছে বিএনপি। দলের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সারা দেশের জেলা ও এর অধীন অন্যান্য সাংগঠনিক ইউনিটকে নতুন নেতৃত্ব দিয়ে দ্রুত সাজানো হবে।

কাউন্সিলের মাধ্যমেই নেতা নির্বাচনের পরামর্শ দেয়া হয়েছে। নির্দেশ দেয়া হয়েছে দলের ক্ষতিগ্রস্ত নেতাকর্মীদের দেখভাল করার। এ জন্য আহত, নিহত, গুম, গ্রেপ্তার ও মামলায় জর্জরিত নেতাদের তালিকা প্রস্তুত করতে বলেছে কেন্দ্র।

গত বছরের মে’তে তৃণমূল গোছানোর উদ্যোগ নিয়েছিল বিএনপি। সময়ও বেঁধে দেয়া হয়েছিল দুই মাস। কিন্তু ষষ্ঠ কাউন্সিল আয়োজনসহ বেশ কিছু সাংগঠনিক কারণে এই প্রক্রিয়া তেমন এগোয়নি।

কাউন্সিলের আগে ১৫টির মতো জেলায় নতুন কমিটি দিতে পেরেছিলেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, কেন্দ্রীয় কমিটি গঠনের পর সেই প্রক্রিয়াই নতুন করে শুরু হয়েছে। আগের মতোই দল পুনর্গঠনে সমন্বয়কের দায়িত্ব পেয়েছেন ভাইস চেয়ারম্যান মো: শাহজাহান।

জানা গেছে, সংগঠনের ভিত মজবুত করতে দায়িত্বশীল নেতাদের নিয়ে সোমবার রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বৈঠকে আনুষ্ঠানিকভাবে মো: শাহজাহানকে সমন্বয়ক করার কথা জানিয়ে দেয়া হয়। বেলা ১১টা থেকে প্রায় দুই ঘণ্টাব্যাপী এ বৈঠকে যুগ্ম মহাসচিব মজিবর রহমান সরোয়ার, সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা: শাখাওয়াৎ হোসেন জীবন, মাহবুবুর রহমান শামীম, এমরান সালেহ প্রিন্স, বিলকিস জাহান শিরীন, শামা ওবায়েদ, সহসাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, আকন কুদ্দুসুর রহমান, খন্দকার মাশুকুর রহমান, সেলিমুজ্জামান সেলিম, জয়ন্ত কুমার কুণ্ডসহ ২৫ জন নেতা উপস্থিত ছিলেন।

মোহাম্মদ শাহজাহান এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে বলেন, এ বৈঠকের মধ্য দিয়ে দল পুনর্গঠন প্রক্রিয়ার যাত্রা শুরু হলো। দলের মহাসচিব বৈঠকে এ কাজ করার জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে তার নাম ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেন, পুনর্গঠন কাজ দ্রুত করতে খুব শিগগির বিভাগ ওয়ারী বিভিন্ন জেলার নেতাদের সাথে তিনি মতবিনিময় করবেন।

বৈঠক শেষে একাধিক নেতা জানান, কিভাবে আরো দ্রুত গতিতে দলের পুনর্গঠন কাজ এগিয়ে নেয়া যায় তা নিয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত হয়েছে। যেহেতু মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে দলের অনেক গুরুত্বপূর্ণ কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করতে হয়, তাই দলের স্বার্থে তাকে ফ্রি রাখতে এই পুনর্গঠন প্রক্রিয়ার দায়িত্ব দেয়া হয়েছে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহানকে।

বৈঠকে যেসব বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা সাংগঠনিক প্রতিবেদন এখনো জমা দেননি তাদের দ্রুত খোঁজখবর নিয়ে সঠিক তালিকা প্রস্তুত করার নির্দেশ দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব। এ ছাড়া প্রতিটি বিভাগের গুম, খুন, আহত, নিহত ও গ্রেপ্তার হওয়া নেতাদের তালিকা দ্রুত কেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়। দলে এক নেতার এক পদ কার্যকর হবেই উল্লেখ করে মহাসচিব বৈঠকে বলেন, দলে যাদের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ পদ রয়েছে, এক পদ রেখে বাকি পদ ছেড়ে দিতে হবে। এ সিদ্ধান্ত দ্রুত জানাতে হবে। তা না হলে দল থেকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

রাজশাহী বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ শাহীন শওকত বলেন, এই বৈঠকের মধ্য দিয়ে মূলত তৃণমূল সংগঠন গোছানোর প্রক্রিয়া আবারো শুরু হলো। কাউন্সিলের মাধ্যমে প্রতিটি কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তিনি আশা করেন, এরফলে তৃণমূলে সাংগঠনিক কার্যক্রম আবারো চাঙ্গা হবে।

বরিশাল বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিলকিস জাহান শিরিন বলেন, দল পুনর্গঠনে ভাইস চেয়ারম্যান মো: শাহজাহানকে সমন্বয়কের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। বৈঠকে সেটি আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়েছে। এ ছাড়া দল দ্রুত গোছাতে কী কী করণীয়,সে বিষয়ে যুগ্ম মহাসচিব ও সাংগঠনিক সম্পাদকদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন দলের মহাসচিব। এর ফলে সাংগঠনিক কাজে নতুন গতি আসবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

Related posts