September 19, 2018

ধর্ষনে ব্যর্থ হয়ে কুপিয়ে জখম!

জাহিদুর রহমান তারিক
ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ঘোড়ামারা গ্রামে সাথী খাতুন (১৯) নামে এক গৃহবধূকে ধর্ষনে ব্যর্থ হয়ে কুপিয়ে জখম করেছে বিদ্যুৎ নামে এক লম্পট। বিদ্যুৎ সদর উপজেলার কলমনখালী গ্রামের মৃত আব্দুল বারীর ছেলে। আহত সাথী খাতুনকে উদ্ধার করে প্রথমে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল ও সন্ধ্যায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে ঘোড়ামারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

সাথী খাতুন পোড়াহাটী ইউনিয়নের ঘোড়ামারা গ্রামের আবু বকরের স্ত্রী ও মাগুরা সদর উপজেলার বগিয়া গ্রামের বাহারুল ইসলামের মেয়ে। সাথী খাতুন জানান, লম্পট বিদ্যুৎ প্রায় তাকে কু-প্রস্তাব দিত। বৃহস্পতিবার বিকালে বাড়িতে একা পেয়ে বিদ্যুৎ তাকে ধর্ষনের চেষ্টা করে।

বিষয়টি তিনি তার স্বামীকে জানানোর কথা বললে বিদ্যুৎ ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। লম্পট বিদ্যুৎ সাথীর স্বামীর ভগ্নিপতি এবং ওই বাড়িতেই ঘরজামাই হিসেবে বসবাস করে আসছে। বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি হাসান হাফিজুর রহমান জানান,

আমি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসএই জিয়ারুলকে পাঠিয়েছি। সাথী খাতুন নামে এক গৃহবধূকে কোপানো হয়েছে। আমি ভিকটিমের পরিবারকে মামলা দিতে বলেছি। মামলা হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। তিনি জানান, এ ঘটনার সাথে ধর্ষনের কোন বিষয় ছিল না। তারপরও বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ রুমন জানান,

সাথীর মাথায় ধারালো অস্ত্রের কোপ রয়েছে। এ ছাড় তার মুখমন্ডল থেতলে গেছে। বমির সাথে রক্ত আসছে। এ জন্য উন্নত চিকিৎসার জন্য সাথীকে ফরিদপুর মেডিকেলে রেফার্ড করা হয়েছে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন ডেরি/১৯ মে ২০১৬

Related posts