November 16, 2018

দ. কোরিয়া সকার বিরোধী ব্যাপক বিক্ষোভ

শনিবার পুলিশের সঙ্গে জনতার সংঘর্ষ হয়

দক্ষিণ কোরিয়া সরকারের বিভিন্ন নীতির প্রতিবাদে রাজধানী সিউলে বিক্ষোভ দেখিয়েছে অন্তত ৮০,০০০ মানুষ। আজকের (শনিবার) এ বিক্ষোভ নিয়ন্ত্রণ করতে পুলিশ টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ ও জল কামান ব্যবহার করেছে। সাংবাদদাতারা জানিয়েছেন, সিউলে গত সাত বছরের মধ্যে এত বড় বিক্ষোভ আর হয়নি।

শ্রমিক, সুশীল সমাজ, শিক্ষক ও কৃষকদের বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে এ বিক্ষোভের ডাক দেয়া হয়েছিল। শ্রম আইন সংশোধন, সুনির্দিষ্ট কিছু কৃষিপণ্যের জন্য বিশেষ বাজার খোলা এবং স্কুলগুলোতে রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে প্রণীত ইতিহাস বই বাধ্যতামূলক করে দেয়াসহ আরো কিছু সরকারি নীতির প্রতিবাদে এ বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভে অসংখ্য নারী ও শিশুকেও অংশগ্রহণ করতে দেখা গেছে।

দক্ষিণ কোরিয়া সরকার এই প্রথমবারের মতো দেশটির স্কুলগুলোতে সরকারের পক্ষ থেকে লিখিত ইতিহাস বই বাধ্যতামূলক করে দিয়েছে। সমালোচকরা মনে করছেন, দক্ষিণ কোরিয়ায় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার দাবিতে ১৯৮০’র দশকে স্বৈরশাসকদের বিরুদ্ধে যে রক্তক্ষয়ী আন্দোলন হয়েছে তা ইতিহাস থেকে মুছে ফেলার লক্ষ্যে সরকার এ পদক্ষেপ নিয়েছে।

শহরতলি থেকে বিক্ষোভকারীরা প্রেসিডেন্ট পার্ক গিউন-হাই’র আবাসিক দপ্তর ব্লু হাউজের দিকে অগ্রসর হতে চাইলে শত শত নিরাপত্তা কর্মী তাদের বাধা দেয়। এ সময় ব্ক্ষিুব্ধ জনতা ব্যারিকেড ভাঙতে চাইলে পুলিশ তাদের ওপর টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে ও জল কামান দাগে। তবে এ সংঘর্ষে হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

এর আগে ২০০৮ সালে দক্ষিণ কোরিয়ায় সর্বশেষ বড় ধরনের বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। আমেরিকা থেকে ম্যাড কাউ ডিজিকে আক্রান্ত গরুর গোশত আমদানির প্রতিবাদে ওই বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

Related posts