September 20, 2018

দেশে এলে গ্রেপ্তার হতে পারেন খালেদা’ ইঙ্গিত এরশাদের

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া দেশে এলে গ্রেপ্তার হতে পারেন বলে মনে করছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। সেকারণে খালেদা জিয়া দেশে ফিরবেন কিনা সে ব্যাপারে সন্দেহ প্রকাশ করছেন সাবেক এ রাষ্ট্রপতি।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ

শনিবার বিকেলে রাজধানীর খামারবাড়ী কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে ঢাকা মহানগর উত্তর জাতীয় পার্টির সম্মেলনে তিনি এসব মন্তব্য করেন।

এরশাদ বলেন, ‘খালেদা জিয়া দেশে আসবেন কিনা জানি না। এলে হয়তো তাকে জেলে যেতে হবে। তিনি (খালেদা জিয়া) আমার ওপর অত্যাচার-নির্যাতন-জুলুম চালিয়েছিলেন, এখন আল্লাহ তার বিচার করছে।’

বিএনপি সম্পর্কে সাবেক রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘বিএনপি এখন দুর্বল বলে এ দলের সঙ্গে কেউ সংলাপ করবে না, সংলাপে বসবে না। কাজেই সংলাপের কথা বলে লাভ নেই।’

দেশের গণতন্ত্র বিষয়ে তিনি বলেন, ‘যে গণতন্ত্রের জন্য আমি ক্ষমতা ছেড়ে ছিলাম, সেই গণতন্ত্র আমরা ফিরে পাইনি। আজকে কার সাহস আছে সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলবে? সরকারের বিরুদ্ধে কলম ধরবে? সেই সাহস কারো নেই। ১৯৯১ সালের নির্বাচনে বিএনপি যখন ক্ষমতায় এসেছিল তিন বছরের মাথায় আওয়ামী লীগ সংসদ থেকে পদত্যাগ করল। আবার ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে বিএনপিও সংসদ থেকে পদত্যাগ করলো। একই রূপে উভয় দল পাল্টাপাল্টি পদত্যাগ করেছে। কিন্তু আমরা দেশের স্বার্থে, গণতন্ত্রের স্বার্থের কথা বলছি।’

রওশন এরশাদ ও নিজের মধ্যে কোনো প্রকাশ দ্বন্দ্ব নেই জানিয়ে এরশাদ বলেন, ‘আমাদের মধ্যে কোনো দ্বন্দ্ব নেই। আমরা এক মঞ্চে আছি, ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করছি।’

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘যেহেতু তোমরা আমাকে বাবার মতো সম্মান করো, এজন্য শেষ বয়সে এসে আমাকে তোমরা কষ্ট দিও না।’

জাতীয় পার্টির ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এসএম ফয়সাল চিশতির সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন- বিরোধী দলীয় নেত্রী রওশন এরশাদ এবং জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়াউদ্দিন বাবলু।

সম্মেলেনে এসএম ফয়সাল চিশতি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় পুনরায় ঢাকা মহানগর উত্তর জাতীয় পার্টির সভাপতি নির্বাচিত হন।

বাংলামেইল

গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts