September 25, 2018

দেশীয় পাদুকা শিল্পকে রক্ষার দাবীতে মানববন্ধন, অর্থমন্ত্রী বরারব স্মারকলিপি!

অমিত রায়
ঢাকা থেকেঃ
বাংলাদেশ চামড়া ও রেক্সিন জাতীয় পাদুকা প্রস্তুতকারক সমিতির উদ্যোগে আজ ২১ শে আগস্ট ২০১৬ রোজ রবিবার সকাল ১০.৩০ মিনিটে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে “দেশীয় ক্ষুদ্র পাদুকা শিল্পকে রক্ষার দাবীতে মানববন্ধন ও মাননীয় অর্থমন্ত্রী বরারব স্মারকলিপি প্রদান” কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়।

বক্তারা বলেন, বিদ্যমান সমস্যা মোকাবেলা করে এ খাতের উদ্যোক্তারা কোন মতে টিকে থাকলেও গত কয়েক বছর ধরে সস্তা আমদানীকৃত এবং চোরাই জুতা ও স্যান্ডেল অবাধে যত্রত্ত্র বিক্রয় হওয়াতে এ শিল্পের উদ্যোক্তারা দেউলিয়া হওয়ার পথে। অনেক সময় অসাধু ব্যবসায়ীরা মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে আমদানী খরচ কম দেখিয়ে রাজস্ব কতৃপক্ষকে কম শুল্ক দিয়ে বিদেশী জুতা ও স্যান্ডেল আমদানী করে দেশীয় বাজারে বিক্রি করে স্থানীয় শিল্পকে অবাধ প্রতিযোগিতার মুখে ঠেলে দিচ্ছে। মাননীয় অর্থমন্ত্রীর কাছে

কর্মসূচী থেকে নিন্ম লিখিত দাবীনামা তুলে ধরা হয়।

১। এ শিল্পে ব্যবহৃত আমদানীকৃত ( টঢ়ঢ়বৎ চধৎঃং, ঙঃযবৎং চধৎঃং ড়ভ ঋড়ড়ঃবিধৎ, ঘবপবংংধৎু ঋধনৎরপং ইধংব গবঃধষ-ইঁপশষব, অফযবংরাব এষঁব, এঁৎহ খঊঞঊঢ ) এর উপর অন্যান্য সকল শুল্ক প্রত্যাহার করে শুধুমাত্র ৩% আমদানী শুল্ক আরোপ কার হোক। সকল প্রকার আমদানীকৃত জুতার উপর ৩০০% সম্পূরক শুল্ক আরোপ করা হোক।

২। মিথ্যা ঘোষণা দিয়ে নিন্মমানের বিদেশী জুতা আমদানী ঠেকানোর জন্য বিভিন্ন প্রকার জুতার উপর মূল্য নির্ধারণ করে দেয়া হোক।

আমদানীকৃত জুতা নির্ধারিত মূল্য বাচ্চাদের জুতা ৪ ডলার।
মহিলাদের টয়লেটে ব্যবহৃত জুতা ৬ ডলার
স্যান্ডেল (পুরুষ) ১০ ডলার
পাটি জুতা ( পুরুষ) ২০ ডলার
অফিসিয়াল জুতা ( মহিলা) ১০ ডলার

বাংলাদেশ চামড়া ও রেক্সিন জাতীয় পাদুকা প্রস্তুতকারক সমিতির উপদেষ্টা বঙ্গদীপ এম এ ভাসানীর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন সমাজের গন্যমান্য ব্যাক্তিগণ ও জাতীয় নেতৃবৃন্দ সর্বজনাব বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিউর রহমান খান বাচ্চু, হুমায়ুন কবির, শ্রী দুলাল সাহা, মোঃ হাসান, মোঃ হোসেন খান লিটন, শ্রী সুনীল চন্দ্র মল্লিক, জনাব আলমগীর শেখ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মোহাম্মদ মাসুম, ক্ষুদ্র শিল্প বিশেষজ্ঞ।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts