November 15, 2018

দুইনেত্রী এখনো ঝগড়ায় লিপ্ত, একে অন্যকে দোষারোপ করছেনঃ নাজমুল হুদা

ঢাকাঃ তৃণমূল বিএনপি’র চেয়ারম্যান ব্যরিস্টার নাজমুল হুদা বলেছেন, দুইনেত্রী এখনো ঝগড়ায় লিপ্ত আছেন। তারা নিজেদের মধ্যকার দ্বন্দ্ব মিটিয়ে একসঙ্গে দেশকে অনেক দূর এগিয়ে নিতে পারেন। কিন্তু তা না করে তারা এখনো একে অন্যকে দোষারোপ করছেন।

নাজমুল হুদা বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় সার্কিট হাউজের সম্মেলন কক্ষে চট্টগ্রাম তৃণমূল বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন।

ব্যারিষ্টার হুদা বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে সবচেয়ে ক্ষমতাশালী মহিলা। তিনি ইচ্ছে করলে সবকিছু করতে পারেন। তিনি দিতেও পারেন, আবার নিতেও পারেন।

তিনি বলেন, দেশ আজ রাজনৈতিকভাবে ধরাশায়ী। রাজনীতিতে সবাই এখন মুখোমুখি অবস্থান করছে। হিংসা প্রতিহিংসার রাজনীতি চলছে দেশে। বর্তমানে দেশে এক হিংসাত্মক পরিস্থিতি বিরাজ করছে ।

সাবেক এ বিএনপি নেতা বলেন, আমি প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের সঙ্গে রাজনীতি করেছি। তার আদর্শে অনুপ্রানিত হয়ে রাজনীতিতে আসি। কিন্তু জিয়াউর রহমান যেভাবে দলকে দেখতে চেয়েছিলেন বিএনপি এখন আর সেই অবস্থায় নেই। বিএনপিতে এখন যোগ্যদের পরামর্শ গ্রহণ করা হয় না।

নাজমুল হুদা বলেন, বর্তমানে স্বৈরচারী কায়দায় দেশ চলছে। দেশে এখনো স্বৈরচার রয়েছে।

তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনের আগে সারা দেশে তৃণমূল বিএনপিকে শক্তিশালী করা হবে। এরপর ইসি’র শর্ত পূরণ সাপেক্ষে নিবন্ধন নিয়ে নির্বাচনে অংশ নেবে তৃণমূল বিএনপি। ২০দল এবং ১৪ দলের মত বিএনএ হবে আরেকটি শক্তিশালী জোট।

তৃণমূল বিএনপির কেন্দ্রীয় মহাসচিব মাওলানা আবেদ আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা আক্কাছ আলী খান, সাবেক ছাত্র নেতা অ্যাড. মাসুদ, আমিনুল ইসলাম মুন্না, মঈনুল ইসলাম ফারুক পাটোয়ারী, শ্রমিক নেতা সরোয়ার জাহান জামিল, মো. শামীম হাছান, এইচ এম শামীম, আবুল বরকত আকাশ, ডা. মাহমুদুল হাছান, মো. শাহজাহান প্রমুখ।

সভায় মো. আমিনুল ইসলামকে আহবায়ক ও জামাল হোসেনকে সদস্য সচিব করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট তৃণমূল বিএনপির মহানগর আহবায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়।

Related posts