September 22, 2018

দীর্ঘ নয় বছর পর জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন

1005

রমজানুল মোরশেদ,ঝালকাঠি প্রতিনিধিঃ  দীর্ঘ নয় বছর পরে ঝালকাঠিতে জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আগামী কাল (১৬ জানুয়ারি) ঝালকাঠির পুরাতন ষ্টেডিয়ামে এ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। সম্মেলনকে ঘিরে নেতা-কর্মীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ করা গেছে। ইতমধ্যে জেলার প্রতিটি উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে প্রস্তুতি সভা করা হয়েছে। এর আগে জেলা আওয়ামী লীগের অন্তরগত প্রতিটি ইউনিটে সম্মেলনের মাধ্যমে কমিটি গঠন করা হয়েছে।

২০০৬ সালের ২৪ এপ্রিই সর্বশেষ সম্মেলনের মাধ্যমে জেলা কমিটি গঠন করা হয়। জেলা কমিটির বর্তমান সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম ও সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট খান সাইফুলাহ পনিরের কোন প্রতিদ্বন্দি নাম এখনও শোনা যাচ্ছে না। জেলা কমিটির এই দুই নেতাকে পূর্বের স্থানে রেখে জেলা আওয়ামী লীগের অন্যান্য পদে পরিবর্তন আসতে পারে বলে দলীয়  সূত্রে জানা গেছে। এবারের কমিটিতে প্রবীণদের তুলনায় নবীনদের সংখ্য বেশি হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আর সেক্ষেত্রে সাবেক ছাত্রনেতাদের এই কমিটিতে স্থান হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

সম্মেলনে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু প্রধান অতিথি থাকার কথা রয়েছে। এছাড়া বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহম্মেদ উদ্বোধক, সংসদ সদস্য আবুল হাসনাত আবদুলাহ প্রধান বক্তা,  উপদেষ্টা মন্ডলির সদস্য ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বাহাউদ্দিন নাসিম, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক আফজাল হোসেন ও সংসদ সদস্য ধীরেন্দ্রনাথ সম্ভু বিশেষ অতিথি থাকার কথা রয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব সরদার মো: শাহ আলম সম্মেলনে সভাপতিত্ব করবেন।

ঝালকাঠি সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ সাবের আহম্মেদ বলেন, ‘ সম্মেলনকে ঘিরে সদর উপজেলার ১০ ইউনিয়নে আমরা প্রস্ততি সভা করেছি। প্রতিটি স্থানে  ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। সবার মাঝে সাজ সাজ বর লক্ষ করা গেছে। আমাদের আশা এই সম্মেলনের মাধ্যামে এমন নেতৃত্ব পাব যারা আগামী দিনে দলীয় নেতা-কর্মীদের মূল্যায়ন করে তাদের পাশে থাকবে। ঝালকাঠি জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক মো. সুলতান হোসেন খান বলেন, ‘অতীতের যেকোন সময়ের চেয়ে বর্তমানে ঝালকাঠি জেলা আওয়ামী লীগ অত্যান্ত সু-সংগঠিত ও শক্তিশালি। আর এটা সম্ভব হয়েছে আমাদের সকলের অভিবাবক মাননীয় শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর নেতৃত্বে।

আগামীতে যারা কমিটিতে আসবে তারা শক্ত অবস্থানে থেকে শেখ হাসিনার স্বপ্ন পুরনে কাজ করবে। সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট খান সাইফুল্লাহ পনির বলেন,‘জেলা প্রতিটি ইউনিটের সম্মেলন অত্যান্ত জাক জমক ভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বেশ কয়েকটি সম্মেলনে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু উপস্থিত ছিলেন। অতিতে যেকয়টি জেলা সম্মেলন হয়েছে তার চেয়ে এবারের সম্মেলন অত্যান্ত জাক জমক ভাবে অনুষ্ঠিত হবে বলে আমরা আশা করছি। ঝালকাঠি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সরদার মো. শাহ আলম বলেন,‘আমরা নেতৃত্বে থাকা কালিন সময় ঝালকাঠিকে আওয়ামী লীগের দূর্ঘ বানাতে পেরেছে। সম্মেলনের ব্যাপারে প্রতিটি স্থানে ব্যাপক সাড়া পেয়েছি। এই সম্মেলন হবে একটি ঐতিহাসিক সম্মেলন।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts