September 25, 2018

দাওয়াতুল ইসলামের কেন্দ্রীয় বার্ষিক সম্মেলন

শিহাবুজ্জামান কামাল
লন্ডন প্রতিনিধিঃ          
২৯মে  রোববার পূর্ব লন্ডনের বিগ ল্যান্ড স্ট্রিটে অবস্থিত ‘ দারুল উম্মাহ সেন্টার’ এবং ‘কেয়ার হাউস’এ  দাওয়াতুল ইসলামের  কেন্দ্রীয় বার্ষিক কর্মী সম্মেলন এবং ফ্যামিলি গেদারিং অনুষ্ঠিত হয়েছে। সংগটনের আমীর হাফেজ মাওলানা আবু সায়ীদের সভাপতিত্বে এবং মাওলানা আবু আহমেদ হিফজুর রহমান এবং হাফেজ  মাওলানা আব্দুল মুকিতের যৌথ পরিচালনায় সভার শুরুতে পবিত্র কালামেপাক থেকে তেলাওয়াত  করেন জামেয়াতুল উম্মাহর ছাত্র মোহাম্মদ ইউসুফ বিন কালাম ও হসেইন মোহাম্মদ ইসমাইল।  সাংগঠনের সেক্রেটারি জেনারেল খলিলুর রহমানের সুচনা বক্তব্যের পর ‘একটি শান্তিময় সমাজ’ শীর্ষক আলোচনা পেশ করেন মাওলানা আব্দুর রহমান মাদানি। তিনি বলেন, একটি শান্তিময় সমাজ গঠনে মুসলিম জাতিকে মধ্যম পন্থি শ্রেষ্ঠ উম্মত হিসেবে সেই দায়িত্ব পালন করতে হবে। একজন মুমিন তাঁর সুন্দর কথা, আচার, আচরন,লেন দেন  এবং উত্তম চারিত্রিক গুণাবলির  মাধ্যমে ইসলামের দাওয়াত দিতে হবে।

দলমত  নির্বিশেষে  মানবতার কল্যাণে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করে যেতে হবে।
অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথি বক্তা ইমাম আজমল মসরুর ‘ আদর্শবান সন্তান গড়ার উপায়’ শীর্ষক আলোচনায় তিনি বলেন, প্রত্যেক শিশুরা নিস্পাপ অবস্থায় জন্ম গ্রহণ করে। তাঁদেরকে শৈশব কাল থেকে আদর্শিক, চারিত্রিক, নৈতিক  এবং আধ্যাত্মিক শিক্ষা প্রদান এবং ভাল পরিবেশে গড়ে তোলা প্রতিটি পিতামাতার দায়িত্ব ও  কর্তব্য। সেই সাথে সন্তানদেরকে সময় দেয়া। তাঁদের সাথে বন্ধু ও সুসম্পর্ক স্থাপন। তাঁদেরকে নানা ভাবে সাহায্য, সহযোগিতা করা  পরামর্শ দেয়া।  তাছাড়া সন্তানরা তাঁদের পিতামাতাকে যেন  একজন রোলমডেল হিসেবে দেখতে পায় সেব্যাপারে নজর রাখতে হবে।

এছাড়া ‘ একজন ভাল বৃটিশ নাগরিক হিসেবে আমাদের করনীয়’ শীর্ষক আলোচনা রাখেন জনাব হাসান মঈনুদ্দীন। অনুষ্ঠানে ইসলামী সঙ্গীত পরিবেশন করে ‘দারুল উম্মাহ ট্যালেন্ট শ’র ছাত্রিবৃন্দ। অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছেলেন রঙ্গু মিয়া।

দুপুরের খাওয়া দাওয়ার পর সভার দ্বিতীয় পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।  অনুষ্ঠান পরিচালায় ছিলন সংগঠনের ডিপুটি সেক্রেটারি জেনারেল শাব্বির আহমদ কাওসার। এপর্বে ছিল সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে সঙ্গীত পরিবেশন করেন শিল্পী মাহফুজুর রহমান  ও কবি শিহাবুজ্জামান কামাল। অনুষ্ঠানটি পরিচালনায় ছিলেন মাওলানা আবুল হাসানাত চৌধুরী।

এপর্বে ‘ বৃটিশ সমাজের প্রতি আমাদের দায়িত্ব’ শীর্ষক গুরুতবপুরন আলোচনা রাখেন আমন্ত্রিত বিশেষ অতিথি ডঃ আনাস আল তিকরিতি। তিনি বলেন মুসলমানদের উপর অর্পিত দায়িত্ব গুলো এদেশের সমাজের মানুষের মধ্যে যথাযথ পালন করে যেতে হবে। তাই এখন সময় এসেছে ইসলামের সঠিক  দাওয়াতের কাজ সবার মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার। সেই সাথে মুসলমানদেরকে  এদেশের সামাজিক, রাজনৈতিক অঙ্গন  এবং মুল ধারার কাজের সাথে সম্পৃক্তা বৃদ্ধি এবং পারস্পরিক ঐক্য, শ্রদ্ধা,সম্প্রীতি বৃদ্ধির মাধ্যমে শান্তিময় পরিবেশে সবাই বসবাস করা।  পরে এবিষয়ে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন অতিথি।

সভায় ‘ব্যক্তিগত আধ্যাত্মিক উন্নয়ন’ শীর্ষক বিষয়ে আলোচনা পেশ করেন শায়েখ হাফেজ মাওলানা আবু সায়ীদ। তিনি বলেন আমাদের সত্ত্বা দুটি জিনিসের সমন্বয়ে গটিত। যার একটি হচ্ছে দেহ আর অপরটি রুহ বা আত্না। শরীর সচল রাখতে যেমন খাদ্যের প্রয়োজন ঠিক তেমনি রুহ বা আত্নশুদ্ধির জন্য কোরআন, সুন্নাহ হচ্ছে অন্যতম মাধ্যম। তাই ব্যক্তিগত ও আত্নিক উন্নতির বিকাশে কোরআন, সুন্নাহর জ্জান অর্জন। সেই সাথে তাকওয়া ভিত্তিক জীবন গড়া, এখলাসের সাথে ইসলামের কাজ করা। নিয়মিত আল্লাহপাকের জিকির, তাওবা ইস্তেগফার এবং আত্নসমালোচনার মাধ্যমে মানুষের ব্যক্তিগত এবং আধ্যাত্মিক উন্নয়ন  সম্ভব হয়।

দিনব্যাপী কনফারেন্সে লন্ডন ছারাও সোয়ান্নসি, বৃস্টল, ম্যানচেস্টার,বার্মিংহ্যাম সহ বিভিন্ন শহর থেকে শত শত দাওয়াতুল ইসলামের নেতা কর্মী, পুরুস, মহিলা সম্মেলনে যোগ দেন। সংগঠনের আমীর হাফেজ মাওলানা আবু সায়ীদ উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ জানান এবং তাঁর দোয়ার মাধ্যমে সভার কাজ শেষ হয়।

Related posts