November 21, 2018

দলীয় কর্মীকে পিটিয়ে প্রক্টরের অফিসে আশ্রয় নিল ছাত্রলীগ নেতারা

ইবি প্রতিনিধি: ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে জাহিদ নামে এক দলীয় কর্মীকে পিটিয়েছে ছাত্রলীগ নেতারা। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মঙ্গলবার বেলা ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহিন, মস্তফা, রিজভী, মেহেদীসহ ৭/৮ জন ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী ছাত্রলীগ কর্মী জাহিদকে মারধর করেছে। পরে অন্য গ্রুপের ধাওয়া খেয়ে শাহিন ও তার দলবল নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অফিসে আশ্রয় নেন।

জানা যায়, বাসে উঠাকে কেন্দ্র করে গত ফেব্রুয়ারি মাসে শাহিনুর রহমানের সাথে ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী জাহিদের কথাকাটাকাটি হয়। পরে বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর, ছাত্র উপদেষ্টা ও দলীয় নেতারা বিষয়টি মীমাংসা করে দেয়। কিন্তু মঙ্গলবার বেলা ১২ টার দিকে জাহিদ ও তার বন্ধুরা বিশ্ববিদ্যালয় ফুটবল মাঠে বসে ছিলেন। এসময় শহিন তার দল নিয়ে জাহিদকে ঘিরে ধরে এবং এলোপাতাড়ি মারতে থাকেন। প্রাণ বাঁচাতে জাহিদ দৌড়ে পালাতে গেলে আবারও তাকে মারধর করেন। পরে ছাত্রলীগ নেতারা আহত কর্মী জাহিদকে বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল নিয়ে যান তারা।

ঘটনার পর শাহিন ও তার কর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টর অফিসে আশ্রয় নেন। জাহিদের বাসা ক্যাম্পাসের পাশের শৌলকুপা থানায়। তাকে মারার খবর ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়লে শৌলকুপার কর্মীরা একজোট বেঁধে শাহিনকে খুঁজতে থাকে। শাহিন প্রক্টর অফিসে আছে জানতে পেরে নৌশদ (অর্থনীতি), নাজমুল (বাংলা), সুমন (আইন), কবির (লোকপ্রশাসন) এবং রাকিবসহ (বাংলা) ১০/১২ ছাত্রলীগ কর্মী প্রক্টর অফিসে যান। অফিস ভেতর থেকে আটকানো থাকায় তারা প্রক্টরের অফিস ভাংচুর চালায়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর (সহকারী প্রক্টর) আসাদুজ্জামান বলেন,“ ক্যাম্পাসের স্বাভাবিক পরিবেশ বজায় রাখার জন্য তাদেরকে একত্রে কাজ করার কথা বলেছি। আশা করি তারা বিষয়টি নিজেরা মীমাংসা করে নিবে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/ ১২ এপ্রিল ২০১৬/মাহমুদ

Related posts