September 19, 2018

থাড নিয়ে কোরিয়ার প্রেসিডেন্টকে চীনা প্রেসিডেন্টের ভর্ৎসনা

মার্কিন অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র-ব্যবস্থা ‘থাড’ মোতায়েন করতে দেয়ায় দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট পার্ক জিউন হাইকে ভর্ৎসনা করেছেন চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। চীন সফররত কোরিয়ার প্রেসিডেন্টকে তিনি হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলেছেন, দক্ষিণ কোরিয়ার মাটিতে মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র-ব্যবস্থা মোতায়েনের ফলে আঞ্চলিক অস্থিতিশীলতা ও সংঘাত সৃষ্টি হতে পারে।

চীনা সরকারি বার্তা সংস্থা শিনহুয়া এ খবর দিয়েছে। বৈঠকে জিনপিং বলেন, “বিষয়টি নিয়ে আনাড়িপনা করলে তা আঞ্চলিক স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠায় কোনো রকম সহায়তা করবে না বরং দ্বন্দ্ব-সংঘাত বাড়িয়ে তুলতে পারে।” চীনের হাংঝু শহরে অনুষ্ঠানরত জি-২০ সম্মেলনের অবকাশে তিনি দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের সঙ্গে এ বৈঠক করেন। এ সময় তিনি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বিশেষ করে কোরিয় উপদ্বীপে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠায় চীনের প্রতিশ্রুতির কথা তুলে ধরেন।

চীনা প্রেসিডেন্ট বলেন, দীর্ঘ মেয়াদি শান্তি ও স্থিতিশীলতার জন্য কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ করতে তার দেশ আন্তরিক রয়েছে তবে প্রাসঙ্গিক বিষয়গুলো সংলাপ ও পরামর্শের ভিত্তিতে মীমাংসা হতে হবে। এ সময় প্রেসিডেন্ট জিনপিং সুস্পষ্ট করে বলেন, উত্তর কোরিয়া হচ্ছে চীনের সবচেয়ে কাছের প্রতিবেশী এবং পিয়ংইয়ংয়ের সঙ্গে উন্নয়ন ও আঞ্চলিক শান্তির ক্ষেত্রে দীর্ঘদিনের অভিন্ন স্বার্থ রয়েছে। বৈঠকে অবশ্য তিনি দু দেশের সম্পর্ক উন্নয়নের প্রশংসা করেন। এতে চীন ও দক্ষিণ কোরিয়ার জনগণ উপকৃত হচ্ছে বলেও জিনপিং উল্লেখ করেন।

বৈঠকে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট বলেন, উত্তর কোরিয়ার কর্মকাণ্ডের জন্য চীনের সঙ্গে তার দেশের সম্পর্কে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। তিনি জোর দিয়ে বলেন, উত্তর কোরিয়ার তৎপরতার কারণে আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা বিনষ্ট হচ্ছে।

গত কয়েক বছরে উত্তর কোরিয়া পরমাণু বোমা এবং বহুবার শক্তিশালী ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা করেছে। এসব ঘটনাকে দক্ষিণ কোরিয়া ও তার মিত্র আমেরিকা উসকানিমূলক তৎপরতা বলে আখ্যা দিয়েছে। এ অজুহাতে আমেরিকা দক্ষিণ কোরিয়ার মাটিতে থাড ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর তীব্র বিরোধিতা করে আসছে চীন।

Related posts