September 26, 2018

“ত্রিপুরার অবাম রাজনীতির মোড় কোনদিকে? বিজেপি না তৃণমূল।”

উত্তমবণিক            
রাজ্যের রাজনৈতিক অবস্হা বিশেষকরে অবাম রাজনীতিরর ব্যাপক টানাপোড়ন চলছে, রাজ্যের কংগ্রেস এখন একেবারে ছন্নছাড়া ৬০আসন বিশিষ্ট এিপুরা বিধানসভাতে কংগ্রেসের বিধায়ক ছিলো মাত্র ১০জন এর পশ্চিমবাংলায় বাম কংগ্রেসের জোটের প্রতিবাদে এইরাজ্যোর একাংশ কংগ্রেস বিধায়ক সহ দলের নেতা কর্মীরা প্রতিবাদী হয়ে উঠে,তানিয়েও অনেক নাটক সংগঠিত হয়,এর মধ্যো ৭ জন কংবিধায়ক কং ত্যাগ করে মমতার তৃণমূলে যাবার উদ্যোগ নিতেই এদের মধ্যোএক বিধায়ক জীতেনসরকার তার বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিয়ে সিপিএম দলে যোগ দেয়।

এই বিধায়ক আগেও সিপিএম ছিলো গত ২০০৮সালের বিধানসভা নির্বাচনের পর কংগ্রেসে আসে ২০১৩সালের বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের টিকিটে বিধায়ক হয়,রাজ্যে বিধানসভারর বিরোধীদলনেতা সুদীপরায়বর্মনের নেতৃত্বে এখন ৬কংগ্রেসি বিধায়ক কংগ্রেস ত্যাগ করে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছে,ফলে ত্রিপুরাতে কংগ্রেস এখন ডুবন্ততরি,অন্যদিকে ভারতের মনসদে আসীন বিজেপি ত্রিপুরাতে তাদের সাংগঠনিক শক্তিবৃদ্ধিরর জন্য ব্যাপক তৎপরতা চালাচ্ছে ইতিমধ্যে বিজেপি এই রাজ্যে তাদের সাংগঠনিক শক্তি অনেকটাই বাড়িয়ে নিতে পেরেছে,একসময়ের কংগ্রেসের যারা তাবড় নেতা ছিলো বর্তমানে তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা বনে গেছে তাদের অতীত রাজনীতির কলাকৌশল রাজ্যের বড় অংশের জনগণের পছন্দনয়,গোষ্ঠিরাজনীতি।

লবীরাজনীতিতে সিদ্ধহস্ত তারা ফলে তাদের উপর ভর করে তৃণমুলকংগ্রেস ততোটুক শক্তিশালী হবে তা নিয়েও জনমানসে প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে কেবলমাত্র কংগ্রেস ভেঙ্গে তৃনমূলে ভীড় করলে যে রাজ্যের মনসদে থাকা বামেদের হঠানো যাবেনা তা রাজ্যের জনগণ বুঝতে পারছে, তবে সিপিএমের প্রতি বীতশ্রদ্ধ হয়ে যারা দল ছাড়ছে তাদের বেশীরভাগ বিজেপির দিকে ঝুকেছে বিজেপির রাজ্য সভাপতি বিপ্লব দেব এবং সহঃসভাপতি সুবলভৌমিক প্রতিনিয়ত রাজ্যে চষে বেড়াচ্ছে বিশেষ করে সারারাজ্যটা কে হাতের তালুর মতো চেনা সুবলভৌমিকের, সুবলকে পেয়ে বিজেপি সাংগঠনিক ভাবে অনেকটাই এগিয়ে গেছে।

বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব ও ত্রিপুরার প্রতি বিশেষ নজর দিয়েছে, ত্রিপুরার সীমান্ত লাগোয়া আসামে বিজেপি সরকারে আসার পর তাদের এখন নজর ত্রিপুরার দিকে,ফলে ত্রিপুরাতে এখন বিজেপি তৃনমূল দুদল কোমড় বেধে ময়দানে নেমে পড়েছে,তবে রাজনৈতিকমহলের মতে আগামী২০১৮সালের বিধানসভা নির্বাচনে যদি এই দুদল জোট না করে তাহলে এতো লড়াই এতো সংগ্রাম কোন কাজে আসবেনা,বামেরা আবার সরকার গঠন করবে,ত্রিপুরার অবাম রাজনীতির হাল কোন দিকে যায় সেইদিকেই তাকিয়ে আছে জনগণ।

লেখকঃ উত্তমবণিক ত্রিপুরা।(ভারত)

Related posts