November 15, 2018

তোমরা যারা কানে ধরেছে……


রাজু আহমেদ
একদা আমিও সন্তানের পিতা হব । শুধু আমার কেন, যারা এ প্রজন্মের তারা সবাই বাবা-মা হবে । এজন্য ভাবতেছি শিক্ষা পদ্ধতিতে কিছুটা পরিবর্তন আনব । কেননা সন্তানকে সুশিক্ষা দেয়া তো প্রত্যেক অভিভাবকের দায়িত্ব । এই এখন যেমন স্কুল কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীর সাক্ষাৎকার নিয়ে স্কুলে ভর্তি নেয়-কেবল এই ব্যবস্থার পরিবর্তন । আগামীর দিনগুলোতে শিক্ষার্থীরা ভর্তির জন্য কোন পরীক্ষা দেবে না । বরং অভিভাবকরা শুধু শিক্ষকদের পরীক্ষা নিয়ে তারপর তাদের সন্তানকে স্কুলে ভর্তি করবে । পরীক্ষা বোর্ডে প্রশ্ন থাকবে, ভক্তের ভক্ত হয়ে ২০১৬ সালে আপনি কি কান ধরে রাস্তায় দাঁড়িয়েছিলেন ? শিক্ষকের উত্তর যদি না’বোধক হয় তবে তার কাছে সন্তানকে শিক্ষা গ্রহনের জন্য দেয়া যাবে । আর শিক্ষক যদি হ্যা-বাচক উত্তর দেয় তবে কোন অবস্থাতেই তাদের কাছে সন্তানকে শিক্ষার জন্য অর্পণ করা যাবে না । কেননা রাস্তায় দাঁড়িয়ে কানধরা একজন শিক্ষক শিক্ষার্থীর সামনে কোন মুখে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারবে । যারা কান ধরে রাস্তায় দাঁড়াতে পারে, তাদের নিজেদের তো কোন লজ্জা নাই, কাজেই তাদের কাছে সন্তানকে শিক্ষা গ্রহনের জন্য দিলে সে সন্তানও নিঃসন্দেহে নির্লজ্জ হবে ।
…..
শিক্ষকের অপমান আমরা মানতে পারি না । যারা শিক্ষককে কান ধরিয়েছে, তারা নিশ্চয়ই আইনে হাতে তুলে নেয়ার অপরাধ । কিন্তু সেই অপরাধের প্রতিবাদে আরও কতগুলো অপরাধের জন্মা দিতে হবে কেন ? শিক্ষকের মর্যাদা রক্ষায় কিংবা তাদের প্রতি ভালোবাসায় যদি প্রতিবাদ জানাতেই হয়, তবে কি তার জন্য অন্য কোন বৈকল্পিক প্রতিবাদ ছিল না ? ক্লাস বর্জন, রাস্তায় প্রতিবাদ, শিক্ষাভবন অবরোধ, স্মারকলিপি প্রদানসহ আরও কতধরণের প্রতিবাদের মাধ্যম আছে । এসব কিছু বাদ দিয়ে দলে দলে কান ধরা শিক্ষকদের অশিক্ষক সূলভ আচরণই প্রকাশ করেছে । শিক্ষার্থীদের সামনে, মিডিয়ার সামনে, দেশবাসীর সামনে, স্ত্রী-সন্তানের সামেনে স্বহস্তে স্বকান ধরে দাঁড়াতে একটুও লজ্জা করলো না ? শিক্ষক যদি অশিক্ষিতের মত আচরণ করে, তবে তাদের দ্বারা এ জাতি কি আশা করতে পারে ? শিক্ষকের প্রতি টান যদি উথলায় তবে সেটা কেবল একজন শিক্ষকের মায়ায় কেন ? দেশে অন্য শিক্ষকরাও যে নিত্যদিন নির্য্যাতিত হচ্ছে তা নিয়ে তো কারও কোন প্রতিবাদ দেখছি না । ভক্তের ভক্তরা কি এ রহস্যের জটটা একটুখানি উম্মোচিত করে জাতিকে চিন্তামুক্ত করবেন ?
……
রাজু আহমেদ।কলমালিষ্ট।
ইহা লেখকের একান্ত ব্যক্তি গতমত,প্রকাশক বা সম্পাদক দায়ী নহে।

Related posts