November 20, 2018

তুরস্কে গণতন্ত্রের পক্ষে রাস্তায় নেমে এসেছে হাজার হাজার মানুষ

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ  তুরস্কে ব্যর্থ ক্যুয়ের পর গণতন্ত্রের সমর্থনে হাজার হাজার মানুষ রাস্তায় নেমে এসেছে। আটক করা হয়েছে ছয় সহস্রাধিককে। গতকাল রবিবার প্রেসিডেন্ট রেসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের সমর্থনে তারা রাস্তায় নামেন। প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, অভ্যুত্থানের সঙ্গে  জড়িতদের বিরুদ্ধে মৃত্যুদন্ড দেওয়ার বিষয়টি পার্লামেন্টে বিবেচনা করা হতে পারে। এর আগের দিন শনিবার প্রেসিডেন্ট সতর্ক করে দিয়ে বলেন, অভ্যুত্থানের পরিকল্পনা আবারো হতে পারে। তাই সবাইকে রাস্তায় থাকতে হবে।

দেশটির বিচারমন্ত্রী বেকির বোজদাগ জানিয়েছেন, অভ্যুত্থান প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে ছয় সহস্রাধিক আটক করা হয়েছে। বিচারমন্ত্রী জানান, আটককৃতদের মধ্যে উচ্চ পদস্থ সেনা কর্মকর্তা এবং ২ হাজার ৭০০ বিচারক রয়েছেন। গতকাল পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ ডেনিজিলি থেকে ৫০ জন সিনিয়র সেনাকে আটক করা হয়। বিচারমন্ত্রী এটাকে পরিচ্ছন্ন অভিযান বলে উল্লেখ করেন। উচ্চপদস্থ সেনা কর্মকর্তাদের মধ্যে রয়েছেন, থার্ড আর্মির কমান্ডার জেনারেল এরদাল অজতুর্ক, সেকেন্ড আর্মির কমান্ডার জেনারেল আদেম হুদুতি এবং বিমান বাহিনীর সাবেক প্রধান আকিন অজতুর্ক, ডেনিজলি গ্যারিসনের কমান্ডার মেজর জেনারেল ওজহান অজবাকির।এছাড়া দেশটির জ্যেষ্ঠ বিচারক আলপার্সলান আলতানকেও পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। আট তুর্কি সৈন্য যারা গ্রিসে গিয়েছিলেন তাদের সেখানে অবৈধ প্রবেশের অভিযোগে আদালতে হাজির করা হয় গতকাল।

গতকাল আঙ্কারা ও ইস্তাম্বুলের মত প্রধান শহরগুলোতে তুর্কি জনতা জাতীয় পতাকা হাতে রাস্তায় নেমে গান গেযে সরকারের প্রতি তাদের সমর্থন প্রকাশ করে। সন্ধ্যা নামার সঙ্গে সঙ্গে ইস্তাম্বুলের গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলো লোকে লোকারণ্য হয়ে ওঠে। তাদের বক্তব্য একটাই- কিছুতেই দেশ কিংবা গণতন্ত্র সামরিক সদস্যদের হস্তগত হতে দেওয়া যাবে না। রাজধানী আঙ্কারায় পার্লামেন্ট ভবনের বাইরে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য দেন। তুরস্ক থেকে স্থানীয় সাংবাদিক সরওয়ার আলম বিবিসিকে জানিয়েছেন, আবারও বিদ্রোহের চেষ্টা হতে পারে এমন আশংকাতেই সরকারের পক্ষ থেকে মানুষকে রাস্তায় নেমে আসতে বলা হচ্ছে বলছেন অনেকে। তুরস্কের নির্বাচিত সরকারকে সমর্থনের আহ্বান জানিয়ে জাতিসংঘে আনা একটি খসড়া প্রস্তাব মিসরের বিরোধিতার কারণে আটকে গেছে।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি ১৮/০৭/২০১৬

Related posts