September 24, 2018

তাহলে কে জিতলেন, শাকিব নাকি সাকিব?

ডেস্ক রিপোর্টঃ  শাকিব খান ও সাকিব আল হাসান দু’জনই ভেলকি দেখান ভিন্ন দুই মাধ্যমে। শাকিব রূপালি পর্দায় নায়িকার মন জয় করেন, তার এক ঢিশুমে শত্রুরা হয়ে যায় কুপোকাত। আর বাইশ গজে সাকিবের স্পিনে দিশেহারা হয়েছে দুনিয়ার বিখ্যাত ক্রিকেটাররা। ব্যাট হাতেও শতকের ফুলঝুরি ফুটিয়েছেন তিনি।

শাকিব ও সাকিব নিজেদের চেনা অঙ্গনের বাইরে কিংবা একজন অন্যজনের ভূমিকায় কেমন দক্ষ? উত্তরটা মিললো বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) দুপুর থেকে বিকেল অবধি। এদিন ঢাকার তেজগাঁওস্থ একটি স্টুডিওতে একুশের টেলিভিশনের একই ঈদ অনুষ্ঠানে অংশ নেন তারা। পুরো ধারণ কাজ সামনে থেকে দেখলাম।

দু’জনই এসেছিলেন পাঞ্জাবি পরে। সাকিব ছাই রঙা আর শাকিব পরেছিলেন হলুদ পাঞ্জাবি। শুরুতে উপস্থাপিকা ফারহানা নিশোর সঙ্গে সোফায় বসে আড্ডা দিয়েছেন তারা। আলাপচারিতায় উঠে এসেছে তাদের ঈদ, চলচ্চিত্র, ক্রিকেট, ব্যক্তিজীবন, ভক্তসহ নানান বিষয়।

আলাপের পর শাকিব ও সাকিবকে নিয়ে বিশাল মঞ্চের মাঝে আসেন উপস্থাপিকা। এখানে মঞ্চেই বড়সড় লুডুর বোর্ড বসানো হয়েছে। শোলা দিয়ে বানানো ছক্কা মেরে খেললেন তারা। এই খেলায় একজন করেছেন ৫০, অন্যজন ৪৬।

এরপর মঞ্চের এক কোণে গেলেন শাকিব ও সাকিব। সেখানে টেবিলের ওপর বেশকিছু গ্লাস রাখা। সবই শুন্য। একটি গ্লাসের ওপর আরেকটি গ্লাস সাজানোর পর সেগুলোতে শরবত ঢালতে হবে তাদেরকে। এখানে একজন ১৬টি, অন্যজন ১২টি গ্লাসে শরবত ঢালতে পেরেছেন নির্ধারিত সময়ের মধ্যে।

এবার রাইফেল হাতে নিলেন দু’জন। বোর্ডে সাজিয়ে রাখা হয়েছে নানান রঙের বেলুন। উপস্থাপিকা যে রঙের বেলুন ফুটাতে বলেছেন, শাকিব ও সাকিব সেগুলো লক্ষ্য রেখে গুলি ছুঁড়েছেন।

এরপরের খেলাটাই বেশি উপভোগ করলেন সাকিব। খেলাটার নাম যে ক্রিকেট! টসে জিতলেন তিনি। স্ট্যাম্প রাখা হলো মঞ্চের একদিকে। সেখানে ব্যাট নিয়ে দাঁড়ালেন শাকিব। বোলিংয়ে সাকিব। এক ওভার করে খেলা হবে টেনিস বলে। সাকিবের মাপা বোলিংয়ের পরও শাকিব করে ফেললেন ২৫ রান। এবার সাকিব ব্যাটিংয়ে। ওভারের প্রতিটি বল করার সময় শাকিব ‘আউট’ করার আশা মুখে উচ্চারণ করছিলেন। কাকতালীয় হলো, সাকিবও ছয় বলে করতে পারলেন ২৫ রান!

প্রতিটি খেলাই দু’জন বেশ উপভোগ করেছেন মনে হলো। একজনের জন্য অন্যজনের হাততালি, বাহবা আর প্রশংসা সেটাই জানান দিচ্ছিলো। খেলাধুলা শেষে আবার শাকিব ও সাকিবকে নিয়ে সোফায় বসলেন উপস্থাপিকা। ফের কিছুক্ষণ আলাপ করলেন তারা। এরপর শেষ হলো মূল অংশের ধারণ কাজ। এবার প্রোমোর জন্য শাকিব ও সাকিব মঞ্চের মাঝে এসে দাঁড়ালেন।

এই ফাঁকে ফারহানা নিশো জানালেন, দুই অঙ্গনের এই দুই নক্ষত্রকে একত্র করতে চার বছর ধরে চেষ্টা করছিলেন তিনি। ‘একবার তো প্রায় হয়েই যাচ্ছিলো ব্যাপারটা। কিন্তু শেষ মুহূর্তে একজন শুটিংয়ে দেশের বাইরে চলে গেলেন, আর অন্যজনের খেলা পড়ে গেলো। এবার মজবুত করে বায়না ধরেছিলাম। তাদেরকে ধন্যবাদ আমার ডাকে এবার সাড়া দেওয়ার জন্য।’

নাম চূড়ান্ত না হওয়া অনুষ্ঠানটির বিভিন্ন খেলায় অংশগ্রহণের পর শাকিব বনাম সাকিবের মধ্যে কে জিতলেন তা আপাতত জানানো গেলো না উপস্থাপিকার অনুরোধে। ফলাফল জেনে গেলে মজাটাই নষ্ট হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা তার। উত্তরটা জানতে হলে অপেক্ষা করতে হবে রোজার ঈদের পরদিন পর্যন্ত।প্রযোজনায় মাসুদুজ্জামান সোহাগ।

Related posts