September 22, 2018

তাহলে কি অতি বিশ্বাসই কাল?

251
স্পোর্টস ডেস্কঃ   অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে সেমিফাইনালেই শেষ হয়েছে বাংলাদেশের স্বপ্ন। শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে এবারের মিশন শুরু করা মেহেদি হাসান মিরাজের দল লড়াইটা ধরে রেখেছিলেন শেষপর্যন্ত। কিন্তু ভাগ্য সহায় হয়নি। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে আক্ষেপ নিয়ে জানাচ্ছিলেন, শেষদিকে চার হওয়ার পরই বুঝতে পেরেছেন জয়ী হচ্ছেন না।

গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠা বাংলাদেশ সেমিফাইনেল ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ২২৭ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয়। জবাবে ১.২ ওভার হাতে রেখেই তিন উইকেটের জয় তুলে নেয় ক্যারিবিয়ানরা। মিরাজের মতে, ৪৭তম ওভারই ম্যাচের ফলাফল নির্ধারণ করে দিয়েছে।

বললেন, ‘আসলে আমাদের শুরু থেকেই বিশ্বাস ছিল যে আমরা ম্যাচটি জিতব। কিন্তু শেষ দিকে যখন চার হয়ে গেছে তখনই মনে হল যে আমরা ম্যাচটি হেরে গেছি। এর আগ পর্যন্ত আমাদের বিশ্বাস ছিল যে আমরা জিতব। ১৬ বলে ১০ রানে ৩ উইকেট লাগত তখনও বিশ্বাস ছিল আমরা পারব। আমাদের বিশ্বাস ভালো ছিল আজকে।’

তাহলে কি অতি বিশ্বাসই কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে মিরাজদের জন্য? শুরু থেকেই টসে জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সাবেক অধিনায়ক গাজী আশরাফ হোসেন লিপুর কন্ঠেও শোনা গেছে সে কথা।

শেষপর্যন্ত হারটাকেই বড় করে দেখা হয়। অল্প বয়স, চাপ সবই ছিলো। মিরাজ শিখেছেন কিভাবে চাপ সামলাতে হয়। ভবিষ্যতে এসব ব্যাপারগুলো কাজে দেবে বলেও জানালেন। আর শিরোপা জয়ের ভারটা ছেড়ে দিলেন ভবিষ্যৎ প্রজন্মের হাতে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts