December 11, 2018

তারেকের রায়ের বিরুদ্ধে সারাদেশে যুব মহিলা দলের বিক্ষোভ

ঢাকাঃ অর্থ পাচার মামলায় বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের খালাস প্রাপ্ত মিথ্যা মামলায় ৭ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়ার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুব মহিলা দলের (প্রস্তাবিত) কেন্দ্রীয় কমিটি।

আজ দুপুর ১২ টায় ঢাকা জর্জ কোর্ট প্রাঙ্গণ থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ঢাকা আইনজীবী সমিতির (ঢাকা বার) এর সামনে এসে শেষ হয়। পরে তারা এখানে সমাবেশ করে।

বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুব মহিলা দলের (প্রস্তাবিত) কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক এ্যাড. শাহাজাদী কহিনুর পাপড়ি।

বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি বিএনপি নেতা এডভোকেট মহসিন মিয়া।

বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে এডভোকেট মহসিন মিয়া বলেন, এ রায় হলো উদ্দেশ্য প্রণোদিত। তারেক রহমানকে রাজনীতি থেকে দূরে সরানোর জন্য এ রায় দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, তারেক রহমানকে নির্বাচনে অযোগ্য করতেই ‘ষড়যন্ত্রমুলকভাবে’ তাকে  অর্থপাচারের মিথ্যা মামলায় সাজা দেওয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা থেকে শুরু করে তৃনমুলের নেতাদেরকেও এভাবে ‘মিথ্যা মামলায়’ সাজা দেওয়ার পায়তারা চলছে।

সভাপতির বক্তব্যে যুব মহিলা দলের (প্রস্তাবিত) কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক এ্যাড. শাহাজাদী কহিনুর পাপড়ি বলেন, অবৈধ আওয়ামীলীগের স্বৈর-সরকার কর্তৃক ঘোর্ষিত। বিএনপির সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে অবৈধ রায়। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমানকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দেয়ার মহাপরিকল্পনায় সরকার।

এ্যাড. পাপড়ি বলেন, তারেক রহমানকে রাজনীতি থেকে দুরে সরাতে উদ্দেশ্যমুলকভাবে অর্থ পাচারের মামলায় সাজা দেওয়া হয়েছে। তিনি যাতে নির্বাচনে অংশ নিতে না পারেন, সেজন্য নিম্ন আদালত থেকে খালাস পাওয়া মামলায় সরকার দুদককে (দুর্নীতি দমন কমিশন) দিয়ে আপিল করিয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, তারেক রহমানকে সাজা দেওয়ার মাধ্যমে ক্ষমতাসীনরা বিএনপির বুকের মধ্যে হাত দিয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, সরকারের এই ‘অপশাসন’ থেকে দেশকে রক্ষা করতে নেতাকর্মীদের মধ্যে পারস্পরিক দ্বিধা-বিভেদ ভুলে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করতে হবে।

জঙ্গিবাদ-উগ্রবাদের দোহাই দিয়ে সরকার দেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার চেষ্টা করছে। আওয়ামী লীগ রাজনৈতিকভাবে দেউলিয়া হয়ে গেছে। সরকার এখন আন্তর্জাতিকভাবেই বাংলাদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার চেষ্টা করছে।

এর আগে যুব মহিলা দলের খন্ড খন্ড মিছিল কোর্ট প্রাঙ্গণে এসে সমাবেত হয়।আরও উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুব মহিলা দল (প্রস্তাবিত) কেন্দ্রীয় অর্থ
বিষয়ক সম্পাদক ও ঢাকা মহানগরীর সাংগঠনিক সম্পাদক সোনিয়া আহম্মেদ, কেন্দ্রীয় সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক রাফিজা আলম লাকী, নাসরিন বেগম, কেন্দ্রীয় সদস্য, তিনা, মুক্তি, রত্না, সুমাইয়া, মনি, লিপি সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি

Related posts