September 20, 2018

তথ্যপ্রযুক্তি দৈনন্দিন জীবনের সাথে মিশে গেছেঃ জেলা প্রশাসক

407
এ কে আজাদ,চাঁদপুরঃ   জেলা প্রশাসাক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডল বলেছেন, বর্তমান সরকারে অমলে তথ্য-প্রযুক্তির ব্যাপক উন্নতি হয়েছে। এটা সম্ভব হয়েছে সরকারের যুগপোযোগী স্বীদ্ধান্তের কারণে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তার নির্বাচনী ইশতেহারে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। তাই আমরা এর সুফল পাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে ১২ কোটি মানুষ মোবাইল সিমকার্ড ব্যবহার করে এবং সোয়া ৪কোটি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে। বর্তমানে প্রতিটি সরকারি বেসরকারী অধিদপ্তর থেকে শুরু করে অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ডিজিটলাইজ  ব্যবস্থায় উন্নতীকরন হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী দেশের প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ডিজিটাল ক্লাশ রুম করার জন্য দেশের বিত্তশালীদের এগিয়ে আসার আহবান করেছেন। জেলা প্রশাসক তার বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রীর আহবানে সারা দিয়ে চাঁদপুরের বিত্তশালীদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।

তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বর্তমান প্রজন্মের শিক্ষার্থীরা ডিজিটাল ব্যাবস্থার সকল উপকরন ব্যবহার করে এগিয়ে যাচ্ছে। তারা ঘরে বসেই স্কুল কলেজের পাঠ্য সূচীর বাইরেও অনেক কিছু জানছে। বর্তমান প্রজন্মের শিক্ষার্থীরা ডিজিটাল ব্যাবস্থার মধ্য দিয়ে বিশ্বমানের হয়ে গড়ে উঠছে। আমার তাদের কাছে এখন পিছিয়ে পড়া ব্যাক্তিদের ন্যায়। আর এসকল কিছু সম্ভব হয়েছে সরকারের দুরদশী সীন্ধান্তের কারনে। আগামী কয়েক বছরের মধ্যে হয়তো পাঠ্য বইয়ের প্রচলন থাববেনা। শিক্ষকরা ক্লাশ নিবেনে ডিজিটাল স্কীন ও ল্যাপটপের সাহায্যে। তাই আমাদের সকলের এর থেকে দূরে থাকার সুযোগ নেই। বর্তমানে তথ্যপ্রযুক্তি দৈনন্দিন জীবনের সাথে মিশে গেছে। এর থেকে দূরে সরে যাওয়ার কোন সুযুগ নেই।চাঁদপুর স্টেডিয়ামে ৪দিনব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আজ সোমবার তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে উক্ত কথা  গুলো বলেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার বলেন, বর্তমান সময়ে তথ্য-প্রযুক্তি ছাড়া জীবন অসম্ভব হয়ে পরেছে। একজন মানুষের যে কোনো কাজের ক্ষেত্রেই প্রযুক্তির সুবিধা নিতে হচ্ছে। তিনি বলেন, প্রযুক্তির কারণে আজ যে কোনো অপরাধীকেই সহজে চিহ্নিত করা যাচ্ছে। এখন আর কেউ অপরাধ করে পার পাচ্ছে না। আমরা চেষ্টা করছি সকল আপরাধীদের ডাটাবেইজ বেইজ করা হচ্ছে। তা হলে অপরাধ করে বেশী দিন পালিয়ে থাকা সম্ভব হবে না।

গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় চাঁদপুর স্টেডিয়ামের প্যাভেলিয়নে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী পর্বে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসাক মুহাম্মদ লুৎফর রহমানের সভাপতিত্বে ও জেলা শিল্পকলা একাডেমীর কালচারাল অফিসার আবু সালেহ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ফারজানা আলমের যৌথ পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশ্বব্যাংকের লীড ইকনোমিষ্ট আহমেদ আহসান, চাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ ড. এএসএম দেলওয়ার হোসেন, সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর এম এ মতিন মিয়া, প্রেসক্লাব সভাপতি বিএম হান্নান, চেম্বার অব কর্মাস এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায় প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক সোহেল রুশদী প্রমুখ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে অতিথিরা মেলার স্টলগুলো পরদির্শন করেন। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মাওলানা মোবারক হোসেন ও গীতা পাঠ করেন চাঁদপুর  সরকারি কলেজের উদ্ভিদ বিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সুশীল নাহা।

মেলায় সরাকরি অধিদপ্তর, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কম্পিউটার ব্যবসায়ীদের সমন্বয়ে প্রায় শতাধিক স্টল অংশ নেয়। মেলায় প্রতিদিন দুপুরর ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সাংস্কৃতি, বিতর্ক ও বিভিন্ন সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts