November 16, 2018

ঢাকার চারপাশে বৃত্তাকারভাবে সড়কপথ হচ্ছে

যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ, বিকল্প সড়কপথে অন্য জেলাগুলোর যোগাযোগ প্রতিষ্ঠা, অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ স্বাচ্ছন্দ্য করতে ও যানজট কমাতে ঢাকা শহরের চারপাশে বৃত্তাকারভাবে ৯১ কিলোমিটার বিকল্প সড়কপথ চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এই বিকল্প সড়ক চালু করতে কী পরিমাণ জমি অধিগ্রহণ করতে হবে ও ওই জমি অধিগ্রহণে ক্ষতিপূরণের আর্থিক অঙ্ক নির্ণয়ের কাজ করছে যোগাযোগ মন্ত্রণালয়।

বিকল্প সড়কপথ নির্মাণে জমি অধিগ্রহণ এবং ক্ষতিপূরণের আর্থিক অঙ্ক নির্ণয়ের কাজ শেষ হলে তা অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) অনুমোদনের জন্য পরিকল্পনা কমিশনে পাঠানো হবে বলে যোগাযোগ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে।

যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব এম এ এন ছিদ্দিক বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ঢাকাকে যানজটমুক্ত রাখতে, যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ করতে ও স্বাচ্ছন্দ্যে বিকল্প সড়কপথে ঢাকায় প্রবেশ করতে বৃত্তাকারভাবে ঢাকার চারপাশে ৯১ কিলোমিটার বিকল্প সড়কপথ উন্নয়নের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এরই মধ্যে ৯১ কিলোমিটার সড়কপথের রুট ঠিক করা হয়েছে। এখন কী পরিমাণ জমি অধিগ্রহণ করতে হবে এবং তাতে ক্ষতিপূরণ কী পরিমাণ দিতে হবে, সেই সংখ্যা নির্ধারণে কাজ চলছে।’

সচিব এম এ এন ছিদ্দিক আরও বলেন, ‘ঢাকার যোগাযোগ ব্যবস্থা কীভাবে উন্নয়ন করা যায় এ জন্য আমাকে আহ্বায়ক করে একটি কমিটি বানিয়ে কাজ করার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। আমরা সমীক্ষা করে দেখলাম, ঢাকার চারপাশে ৯১ কিলোমিটার বিকল্প সড়কপথ নির্মাণ করলে যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নের সঙ্গে ঢাকার যানজটও কমবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই ৯১ কিলোমিটার সড়কপথের মধ্যে ৬৭ কিলোমিটার সড়ক আগে থেকেই রয়েছে। অবশ্য এই ৬৭ কিলোমিটারের বিভিন্ন জায়গায় সংস্কার করতে হবে। বাকি ২৪ কিলোমিটার নতুনভাবে নির্মাণ করতে হবে। এ ছাড়া ৬৭ কিলোমিটারের মধ্যে বিভিন্ন অংশের মোট ৩৪ কিলোমিটার সড়ক প্রশস্ত করা হবে। এই প্রশস্ত করার জন্য কত ব্যয় হবে তাও নির্ধারণের কাজ চলছে।’

যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ থেকে জানা গেছে, ঢাকা শহরের চারপাশে বৃত্তাকারভাবে যে ৯১ কিলোমিটার বিকল্প সড়কপথ চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার তা হচ্ছে, আব্দুল্লাহপুর থেকে ধউর হয়ে বিরুলিয়া, বিরুলিয়া থেকে গাবতলী, গাবতলী থেকে বাবুবাজার ও সদরঘাট, সদরঘাট থেকে ফতুল্লা হয়ে চাষাড়া, চাষাড়া থেকে বিশ্বরোড দিয়ে সাইনবোর্ড হয়ে শিমরাইল থেকে ডেমরা, ডেমরা থেকে পূর্বাচল হয়ে তেরমুখ, তেরমুখ থেকে আব্দুল্লাহপুর।

বিকল্প এই ৯১ কিলোমিটার সড়কপথের মধ্যে শিমরাইল থেকে ডেমরা, ডেমরা থেকে পূর্বাচল হয়ে তেরমুখ পর্যন্ত নতুনভাবে সড়কপথ নির্মাণ করতে হবে। যার দৈর্ঘ্য ২৪ কিলোমিটার। অন্যদিকে ৬৭ কিলোমিটার আগে থেকে নির্মিত সড়কপথের মধ্যে গাবতলী থেকে পোস্তগোলা পর্যন্ত ১৬ কিলোমিটার দুই লেন বিশিষ্ট সড়কপথকে চার লেনে উন্নীত করা হবে। আব্দুল্লাহপুরের সঙ্গে বিকল্প এই সড়কপথের আগে থেকে নির্মিত ১৮ কিলোমিটার দুই লেন বিশিষ্ট সড়ককে চার লেনে উন্নীত করা হবে।দ্য রিপোর্ট

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts