September 24, 2018

ডেপুটি গভর্নর পদে তিন জনের নাম সুপারিশ

ঢাকাঃ   বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর পদে নিয়োগের জন্য তিন জনের নাম সুপারিশ করেছে সরকার গঠিত সার্চ কমিটি। রোববার কেন্দ্রীয় ব্যাংকে বৈঠক শেষে কমিটির প্রধান কাজী খলীকুজ্জামান এ কথা জানান।

তিনি বলেন, ‘আজকে আমাদের শেষ বৈঠক ছিল। ২১ জনকে আমরা ভাইবায় ডেকেছিলাম, এর মধ্যে তিনজন আসেননি। যারা এসেছেন তাদের মধ্যে যাচাই-বাছাই করে যে তিনজনকে উত্তম মনে হয়েছে আমরা তাদের নাম সুপারিশ করেছি। এখন সরকার যাচাই-বাছাই করে সিদ্ধান্ত নেবে কাকে এবং কবে নিয়োগ দেবে। নিয়োগ দেয়ার আগে এনএসআইয়ের মাধ্যমে তদন্ত করা হবে।’ এই তিনজনের নাম জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন তিনি।

সার্চ কমিটি গত মার্চের শেষের দিকে ডেপুটি গভর্নর পদে নিয়োগের জন্য দরখাস্ত আহ্বান করে বিজ্ঞপ্তি দেয়। ডিজি নিয়োগের জন্য প্রজ্ঞাপন জারির পর নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ৬০টি আবেদনপত্র জমা পড়ে। তা থেকে বাছাই করে ২১ জনকে সাক্ষাৎকারের জন্য ডাকা হয়।
তারা হলেন, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক নির্বাহী পরিচালক আহসান উল্লাহ, মাহফুজুর রহমান, আব্দুল হক, কাজী নাসির আহমেদ এবং বর্তমানে নিবার্হী পরিচালক এসএম মনিরুজ্জামান, নওশাদ আলী চৌধুরী, আব্দুর রহিম, নির্মল চন্দ্র ভক্ত, বিষ্ণুপদ সাহা, মিজানুর রহমান জোয়ার্দার, সাইফুল ইসলাম, হুমায়ূন কবির, আহমেদ জামাল, মো. নাসির উদ্দিন। এছাড়া রূপালী ব্যাংকের ডিএমডি খলিলুর রহমান, হাউস বিল্ডিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশনের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওমর ফারুক, রাকাবের ডিএমডি আবদুল খালেক খান, বিডিবিএলের ডিএমডি আফজালুল বাশার এবং একমাত্র নারী প্রার্থী উত্তরা ব্যাংকের ডিএমডি সাবেরা আক্তারি জামাল।

প্রসঙ্গত, গত ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে ফেডারেল রিজার্ভের বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট থেকে ১০১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার শ্রীলঙ্কা ও ফিলিপাইনে স্থানান্তরিত করে হ্যাকাররা। এর প্রায় এক মাস পরে ফিলিপাইনের ইনকোয়ারার পত্রিকায় অর্থ পাচার সংক্রান্ত প্রতিবেদন প্রকাশের পর রিজার্ভ চুরির বিষয়টি ফাঁস হয়। এ ঘটনার জের ধরে গভর্নর পদ থেকে সরে দাঁড়ান ড. আতিউর রহমান। সেই সঙ্গে আবুল কাশেম ও নাজনীন সুলতানাকে ডেপুটি গভর্নরের পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। এরপরই নতুন ডেপুটি গভর্নর নিয়োগের জন্য কাজী খলীকুজ্জামানকে প্রধান করে সার্চ কমিটি গঠন করা হয়।

আলোকিত বাংলাদেশ

Related posts