September 19, 2018

‘ ট্রেন’ দেখতে উৎসুক জনতার ঢল


রহিম রেজা,ঝালকাঠিঃ  ধান, নদী, খাল এ তিনে বরিশাল। সেই বরিশালে ট্রেন না চললেও। ঝালকাঠির রাজাপুরে চলছে এখন ট্রেন! তাতে মানুষও চড়ছে। আরও মানুষবাহি ট্রেন দেখতে ট্রেন লাইনের চারপাশে ভীড় জমাচ্ছে উৎসুক জনতা। সোনার বাংলা এক্সপ্রেস সিরাজগঞ্জ নামের এ ট্রেনটি ইঞ্জিনের বগিসহ মোট ৪ বগির বিশিষ্ট। তাতে টিকিট মূল্য ধরা হয়েছে ২০ টাকা। বিনোদনের জন্য পহেলা বৈশাখের মেলায় ট্রেন লাইন স্থাপন করে শিশু-কিশোরকে বিনোদন দেয়া হচ্ছে। ঝালকাঠির রাজাপুরের পূর্ব রাজাপুর সাউথপুর ব্রীজ এলাকায় ২০ একর মাঠ জুড়ে ৭ দিন ব্যাপি বৈশাখি মেলার আয়োজন করে স্থানীয় যুব সমাজ।

জেলা প্রশাসন কর্তৃক অনুমোদিত এ মেলায় ট্রেন ভ্রমন ছাড়াও ঘোড়ার দৌড়, নাগর দোলা, লাকি কুপন, হাড়ি পাতিল লটারী, সাবান লটারী, কাঠের পুতুলের খেলাধূলা ও নৌকা বাইছ প্রতিযোগীতার আয়োজন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানের প্রথম দিনে উপজেলার বিভিন্ন স্থানের হাজার হাজার লোকজনের সমাগমে মাঠটি কানায় কানায় পরিপূন্ন হয়ে যায়। মেলায় দুপুরের পর থেকেই মানুষের ঢল নামতে শুরু করে। মেলাকে ঘিরে ফার্নিচারসহ শতাধিক স্টলে বিভিন্ন রকমারির পসরা সাজিয়ে বসেছেন ব্যবসায়ীরা। মেলা কমিটির নেতা তরিকুল ইসলাম তারেক ও মনির বিশ্বাস জানান, রাজাপুর থেকে দেশীয় বিনোদন বিলুপ্তির পথে। তাই দেশীয় বিনোদন ও গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য ধরে রাখতে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ১০ তম বৈশাখি মেলার আয়োজন করা হয়েছে।

মেলায় শিশু-কিশোর ও বৃদ্ধদের বিনোদনের কথা চিন্তা করে ট্রেন ভ্রমন, ঘোড়ার দৌড়, নাগর দোলা, লাকি কুপন, হাড়ি পাতিল লটারী, সাবান লটারী, কাঠের পুতুলের খেলাধূলা ও নৌকা বাইছসহ বিভিন্ন বিনোদনমূলক ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। এদিকে সকালে উপজেলা প্রশাসন পান্তা ইলিশ, র‌্যালিসহ বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে দিনটি উদযাপন করেছে। এতে উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ মনিরউজ্জামান, মিলন মাহমুদ বাচ্চু, অ্যাড. এএইচএম খায়রুল আলম সরফরাজ, এবিএম সাদিকুর রহমান, আফরোজা আক্তার লাইজু, আনোয়ার হোসেন মৃধা মজিবর ও কামাল সিকদারসহ উপজেলার বিভিন্ন শ্রেণি পেশার সুধীজন অংশ নেন।

দ্যা গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/১৪ এপ্রিল ২০১৬/রিপন ডেরি

Related posts