September 24, 2018

ট্রাম্পের মজার কিছু উক্তি

image-16410

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ওয়াশিংটন ডিসিতে এক জমকালো অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। হাজার হাজার মানুষ বৃষ্টি ভেজা আবহাওয়ায় এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন। তবে বিশ্বজুড়ে এদিন ট্রাম্পবিরোধী বিক্ষোভও দেখা গেছে। যুক্তরাষ্ট্রে গত ৪০ বছরের ইতিহাসে সবচেয়ে কম জনপ্রিয়তা নিয়ে ক্ষমতায় বসেন তিনি।
দুদিন আগে এবিসি নিউজ ও ওয়াশিংটন পোস্টের জনমত জরিপের ফলাফলে দেখা যায়, ৬০ শতাংশ মার্কিন নাগরিকের অপছন্দ নিয়ে হোয়াইট হাউসে এবার ক্ষমতার পালাবদল ঘটছে। জর্জ ডব্লিউ বুশের কাছ থেকে ক্ষমতা নেয়ার সময় বারাক ওবামার জনপ্রিয়তা ছিল ৮০ শতাংশ।

নির্বাচনী প্রচারের শুরু থেকেই একের পর এক বিতর্কিত বক্তব্য দিয়ে আসছেন ট্রাম্প। বর্ণবিদ্বেষপূর্ণ, নারী অবমাননামূলক, ইসলাম ও মেক্সিকো বিরোধী বক্তব্য দিয়ে শুরু থেকেই লাইমলাইটে ছিলেন মার্কিন এ ধনকুবের। অনেকেরই মতে, ট্রাম্প পুরোদস্তুর একজন এন্টারটেইনার বা বিনোদনকারী। ট্রাম্পের কিছু মজার উক্তি বিবার্তা পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো-

>> ‘আমার আইকিউ সাধারণের চেয়ে অনেক বেশি। দুঃখিত, এ নিয়ে আপনাদের দুঃখ পাওয়ার কিছু নেই, কারণ, এতে আপনাদের কোনো হাত নেই।’

>> নাইন-ইলেভেনের টুইন টাওয়ার হামলা প্রসঙ্গে একবার ট্রাম্প বলেন, ‘আমি ওখানেই ছিলাম, আমি দেখছিলাম পুলিশ আর দমকলবাহিনী ছোটাছুটি করছে। সেভেন-ইলেভেনে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার বিধ্বস্ত হওয়ার ঠিক পর মুহূর্তের ঘটনা।’ ট্রাম্প আসলে নাইন-ইলেভেনের কথা বলতে গিয়ে ভুল তারিখ বলেছিলেন।

>> প্রার্থী বাছাইয়ের প্রচার চলাকালে রিপাবলিকান প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী টেড ক্রুজের উদ্দেশে টুইটারে ট্রাম্প লেখেন, ‘টেড আমার স্ত্রী মেলানিয়ার একটি ছবি তার প্রচারণায় ব্যবহার করেছেন। সাবধান টেড, আমিও তোমার স্ত্রীর ঢাক পেটাতে পারি।’

>>মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল তোলার ঘোষণা দিয়ে ট্রাম্প বলেন, ‘যখন মেক্সিকো যুক্তরাষ্ট্রে মানুষ পাঠায়, তারা তাদের সেরা মানুষদের পাঠায় না। এমন মানুষদের পাঠায় যাদের সমস্যা রয়েছে আর সেই সমস্যাগুলো তারা আমাদের ওপর চাপিয়ে দেয়। সেসব মানুষ মাদক আনে, অপরাধ আনে, পাশাপাশি তারা ধর্ষক। কেবল অল্প কয়েকজন ভালো মানুষ।’

>> নির্বাচনে ডেমোক্রেট প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে আঘাত করতে এক সমাবেশে ট্রাম্প বলেন, ‘হিলারি যেখানে নিজের স্বামীকে সন্তুষ্ট করতে পারে না, সেখানে পুরো মার্কিন জনগণকে কীভাবে সন্তুষ্ট করবেন?’ ট্রাম্প আসলে হিলারির স্বামী সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটন এবং তার সহকারী মনিকার স্ক্যান্ডালের দিকেই ইঙ্গিত করেছিলেন।

>> হিলারি সম্পর্কে ট্রাম্প আরেকবার বলেছিলেন, ‘হিলারি ক্লিনটনের জনপ্রিয়তা আসলে ‘নারী’ স্ট্যাম্পের জন্য। সত্যি কথা হলো, তিনি যা অঙ্গীকার করছেন, তার কিছুই দিতে পারবেন না। যদি হিলারি পুরুষ হতেন, তাহলে পাঁচ ভাগও ভোট পেতেন না। তিনি নারী বলেই এত ভোট পাচ্ছেন। আর মজার ব্যাপার হলো, নারীরা তাকে একদম পছন্দ করেন না।’
>> সদ্য সাবেক মার্কিন প্রেসিন্টে বারাক ওবামা প্রসঙ্গে ট্রাম্প বলেছিলেন, ‘এক গুরুত্বপূর্ণ সূত্র জানিয়েছে, বারাক ওবামার জন্ম নিবন্ধন আসলে জাল।’
>> ৩৪ বছর বয়সী নিজের মেয়ে ইভাঙ্কা সম্পর্কে ট্রাম্প বলেছিলেন,‘ইভাঙ্কা যদি আমার মেয়ে না হতো তাহলে আমি তার সঙ্গে হয়ত প্রেম করতাম।’

Related posts