September 26, 2018

ট্রলারডুবির তিন দিনেও খোঁজ মেলেনি আট যাত্রীর

535
এ কে আজাদ,চাঁদপুরঃ  চাঁদপুরের হাইমচরে মেঘনা নদীতে ট্রলারডুবির তিন দিনেও খোঁজ মেলেনি আট যাত্রীর।

আজ বৃহস্পতিবার তৃতীয় দিনের মতো উদ্ধার কারীরা নিখোঁজ যাত্রীদের সন্ধানে তাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

মেঘনার তীরে স্বজনরা অপেক্ষায় রয়েছেন কখন তাদের প্রিয় স্বজনের লাশটি পাওয়া যাবে।

মঙ্গলবার মাঝ নদীতে ‘এমভি রবিন’ নামের ট্রলারটি ৫০ যাত্রী নিয়ে মাল বোঝাই অন্য আরেকটি ট্রলারের ধাক্কায়  ডুবে যায়। বেশীর ভাগ যাত্রীরা কূলে উঠলেও এখ নপর্যন্ত আটযাত্রী নিখোঁজ রয়েছেন।
এর আগে মঙ্গলবার ও বুধবার ফায়ার সার্ভিস ও নৌ-বাহিনীর ডুবুরি দল উদ্ধার অভিযান চালায়।

ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা রতন কুমার নাথ বলেন, দুর্ঘটনাস্থলে মেঘনা নদীর প্রচন্ড স্রোত এবং ‘চারশ মিটারের’ বেশি পানি থাকায় ট্রলার ও নিখোঁজ যাত্রীর সন্ধান মিলছে না।
536
দুদিনের নিস্ফল অভিযানের পর দমকলকর্মীরা বৃহস্পতিবার পুনরায় নিখোঁজ যাত্রী ও ট্রলারের সন্ধানে পুনরায় উদ্ধার অভিযান শুরু করেছেন।

গত মঙ্গলবার সকালে হাইমচরের তেলিরমোড় থেকে অর্ধশত যাত্রী নিয়ে ‘এমভি রবিন’ নামের ট্রলারটি ঈশানবালার উদ্দেশে রওয়ানা হয়।

মাঝ নদীতে ঘন কুয়াশায় একটি মালবাহী জাহাজের ধাক্কায় ট্রলারটি ডুবে যায়। ট্রলারে থাকা অন্য যাত্রীরা সাঁতরে নদীতীরে উঠতে পারলেও আট যাত্রীর কোনো সন্ধান এখন মিলেনি।

নিখোঁজরা হলেন ফাহিম (২০), মানিক (৪), তার ভাই রতন (২), নারগিস (৩০), তার মেয়ে শাহজাদী (২০), আলেয়া (২৬), তার দুই সন্তান সিয়াম (৮) ও স্বর্ণা (৪)। এদের বাড়ি হাইমচরের বিভিন্ন এলাকায়।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডটকম/রিপন/ডেরি

Related posts