November 17, 2018

জাপানে স্মৃতিসৌধে বিস্ফোরণ

আইএসের হুমকির পর জাপানে স্মৃতিসৌধে বিস্ফোরণ

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ   মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) মাত্র কিছুদিন আগেই জাপানে হামলার ঘোষণা দিয়েছিল। এই হুমকির মধ্যেই স্থানীয় সময় সোমবার দুপুরে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নিহত ২৫ লাখ জাপানির স্মরণে নির্মিত ইয়াসুকুনি মন্দিরের শৌচাগারে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। বিস্ফোরণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে মন্দিরের মূল ভবনের দেয়াল ও সিলিঙের কিছু অংশ। এ ছাড়া এই ঘটনায় একজন পুরোহিতও আহত হন।

কয়েক মাস ধরে আইএস বিভিন্নভাবে জাপানকে হামলার হুমকি দিয়ে আসছিল। সর্বশেষ গত বুধবার আইএসের মাসিক পত্রিকা ‘দাবিক’এ জাপানে হামলার চূড়ান্ত পরিকল্পনার হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়।

জাপানি কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে রয়টার্স জানায়, দূরনিয়ন্ত্রিত বোমার সাহায্যে ভবনটিতে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে বলে ধারণা করছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তবে কারা এই বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে এই বিষয়ে একেবারে অন্ধকারে পুলিশ। তবে ঘটনাস্থল থেকে ব্যাটারি ও তার উদ্ধার করা হয়েছে। সন্দেহভাজনরা পরিকল্পিতভাবে আক্রমণ চালাতে চেয়েছিল বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

জাপানের এই মন্দির আবার শিনতো ধর্মাবলম্বীদের জন্য একটি পবিত্র স্থান। বছরের প্রথম ফল উৎসব উদযাপনকে সামনে রেখে গতকাল মন্দিরটিতে জনসমাগম বেশি ছিল। এর মধ্যেই মন্দিরটিতে হামলার ঘটনা ঘটে।

রয়টার্স জানিয়েছে, টোকিওতে অবস্থিত ইয়াসুকুনি মন্দিরটি নানা কারণেই বিতর্কিত। গত দেড়শ বছরে বিভিন্ন যুদ্ধে নিহত ২৫ লাখ জাপানির স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ইয়াসুকুনিতে এই মন্দির তৈরি করা হয়। সত্তরের দশকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের বেশ কয়েকজন চিহ্নিত ‘যুদ্ধাপরাধীকে’ সেখানে সমাধিস্থ করার পর দেখা দেয় বিতর্ক। চীন ও দক্ষিণ কোরিয়া এই মন্দির বা স্মৃতিসৌধটিকে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে জাপানি আগ্রাসনের প্রতীক বলে চিহ্নিত করে থাকে।

দি গ্লোবাল নিউজ ২৪ ডট কম/রিপন/ডেরি

Related posts